ব্র্যান্ড ভ্যালু নিম্নমুখী, প্রশ্ন দলের অন্দরেও ...

'মর্নিং কনসাল্ট' নামে মার্কিন সমীক্ষা সংস্থার রিপোর্টও মোদির জনপ্রিয়তা কমার ছবি তুলে ধরল
ব্র্যান্ড ভ্যালু নিম্নমুখী, প্রশ্ন দলের অন্দরেও ...
গ্রাফিক্স- নিজস্ব

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ক্ষমতায় আসার পর থেকেই বিশ্বের কাছে নিজের ব্র্যান্ড ভ্যালু বাড়ানোর চেষ্টা করে গিয়েছেন। আর তাতে তিনি সফলও হয়েছেন। ভারতের বাইরে মোদি একটা আলাদা জায়গা করে নিয়েছিলেন নিজের। কোভিডের প্রথম পর্বের মোকাবিলা ভালোভাবে হওয়ায় বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমও তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছিল। কিন্তু কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় ব্যর্থ হওয়ায় মোদি সরকারের মুখ পুড়েছে আন্তর্জাতিক মহলে। আর সেটা কেন্দ্রীয় বিজেপি ও মোদি স্বয়ং খুব ভালো করেই জানেন।

এক বছর সময় পেয়েও কেন মোদি সরকার চিকিৎসা পরিকাঠামো উন্নত করার দিকে মন দেয়নি, সেই প্রশ্ন উঠেছে সর্বত্রই। এছাড়াও অক্সিজেনের অভাবে, বিভিন্ন হাসপাতালে অক্সিজেন না পেয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি, প্রয়োজনীয় ওষুধ না পাওয়া, কালোবাজারি, সঠিকভাবে ভ্যাকসিনেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন না হওয়া, ভ্যাকসিনের অভাব, এই সব ব্র্যান্ড মোদির ভাবমূর্তিকে আরও ক্ষুণ্ন করেছে। এখন দলে আলোচনা করা হচ্ছে কীভাবে মোদির ভাবমূর্তি আবার ফিরিয়ে আনা যায়। তবে বর্তমান করোনা পরিস্থিতি যে পর্যায়ে রয়েছে, তা মোকাবিলা করতে পারলে মোদির ইমেজে আবার কিছুটা উদ্ধার করা সম্ভব হবে বলে ধারণা রাজনৈতিক মহলের।

এবার একটি মার্কিন সমীক্ষা সংস্থার রিপোর্টও মোদির জনপ্রিয়তা কমার ছবি তুলে ধরল। আমেরিকার মর্নিং কনসাল্ট নামে একটি ডাটা-সমীক্ষক সংস্থা নরেন্দ্র মোদি-সহ বিশ্বের বহু রাষ্ট্রনেতার জনপ্রিয়তার উত্থান-পতনের গ্রাফ তৈরি করে। মঙ্গলবার এপ্রিল মাসের রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। তাতে দেখা যাচ্ছে, মোদির জনপ্রিয়তার সূচক আগের চেয়ে ২২ পয়েন্ট কমে এই সপ্তাহে সার্বিক সূচক দাঁড়িয়েছে ৬৩ শতাংশ। ২০১৯-এর পর থেকে এটাই তাঁর নিম্নতম স্কোর। কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলার ব্যর্থতাই এর কারণ বলে মনে করা হচ্ছে।

আর একটি আন্তর্জাতিক জনমত সমীক্ষক সংস্থা, ইউগভ-এর সমীক্ষা রিপোর্টও বলছে, ফেব্রুয়ারিতে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার পর থেকেই মোদির জনপ্রিয়তা কমতে শুরু করেছে। কোভিড-সঙ্কট সামলাতে মোদি কতটা সফল, এই প্রশ্নের উত্তরে ‘খুব ভালো’ বা ‘মোটের উপর ভালোই’ উত্তর দিয়েছেন ৫৯ শতাংশ উত্তরদাতা। কোভি়ডের প্রথম ঢেউয়ে এই অনুপাতটা ছিল ৮৯ শতাংশ।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in