গত ৯ মাসে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৭০০ রেলকর্মী, আক্রান্ত ৩০ হাজার!
প্রতীকী ছবি সংগৃহীত

গত ৯ মাসে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৭০০ রেলকর্মী, আক্রান্ত ৩০ হাজার!

গত ন’মাসে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩০ হাজার রেলকর্মী! মারা গিয়েছেন প্রায় ৭০০জন। মৃতদের অধিকাংশই ফ্রন্টলাইন কর্মী। ট্রেন চলাচলের সময় তাঁরা আমজনতার সরাসরি সংস্পর্শে এসেছিলেন। এক সূত্র থেকে এমনটাই জানা গিয়েছে। অতিমারির সময় রেল পরিষেবা দিতে গিয়ে বিপুল সংখ্যক কর্মীর বলিদানের এই করুণ পরিসংখ্যান সামনে এল। রেলবোর্ডের চেয়ারম্যানের তরফে এই পরিসংখ্যান ঘোষণা করা হয়েছে।

সেই সঙ্গে রেল যে প্রত্যেক কর্মীদের বিষয়ে সচেতন এবং সেজন্য প্রতিটি অঞ্চলে কোভিড সেন্টার খোলা হয়েছে তাও জানিয়ে দেন তিনি। তাঁর কথায়, 'প্রথমে আমরা করোনার চিকিৎসার জন্য ৫০টি হাসপাতালের ব্যবস্থা করেছিলাম। এখন তা বাড়িয়ে ৭৪ করা হয়েছে।'

তবে চেয়ারম্যান মৃতের সংখ্যা নিয়ে কিছু বলেননি। গতকাল এক সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, সংখ্যাটা প্রায় ৭০০! লকডাউনের শুরুতে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও মে মাসেই পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিশেষ ট্রেন চালানো শুরু হয়। দেশজুড়ে এই বিশেষ ট্রেন চলতে শুরু করার পর বহু রেলকর্মীকেই জনসাধারণের সরাসরি সংস্পর্শে আসতে হয়। আর তার ফলেই এই বিপুল সংখ্যক মানুষ সংক্রমিত হন বলে মনে করা হচ্ছে। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে হয় কয়েকশো রেলকর্মীকে। তাঁদের ‘অন্তরালের নায়ক’বলে উল্লেখ করেছে সেই সূত্র।

গত সেপ্টেম্বরে রেল মন্ত্রক জানিয়েছিল, করোনা আক্রান্ত রেলকর্মীদের সংখ্যা ১৪ হাজারের বেশি। মৃত ৩৩৬ জন। সেই সঙ্গে এও পরিষ্কার করে দেওয়া হয়, কোনও অসুখে ভুগে মারা গেলে সেই রেলকর্মীর পরিবারকে আলাদা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয় না। ফলে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত রেলকর্মীদের পরিবারও আলাদা করে কোনও ক্ষতিপূরণ পাবে না।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in