অর্থমন্ত্রীর কাছে পুরোনো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোটে ৫১ কোটি টাকা বদলে দেবার দাবি তিরুপতি মন্দির ট্রাষ্টের

অর্থমন্ত্রীর কাছে পুরোনো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোটে ৫১ কোটি টাকা বদলে দেবার দাবি তিরুপতি মন্দির ট্রাষ্টের
ছবি সংগৃহীত

দেশে ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিল হয়েছে ২০১৬ সালের ৮ ডিসেম্বর। প্রায় চার বছর পরে তিরুপতি মন্দিরের ট্রাষ্ট জানালো তাদের কাছে পুরোনো ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোটে প্রায় ৫১ কোটি টাকা আছে। পুরোনো ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোটে প্রায় ৫১ কোটি টাকা বর্তমান বাজার চলতি কারেন্সি নোটে বদল করে দেবার দাবি নিয়ে অর্থমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানালো তিরুপতি মন্দিরের থিরুমালা তিরুপতি দেবস্থানম ট্রাষ্ট।

তিরুপতি মন্দিরের থিরুমালা তিরুপতি দেবস্থানম ট্রাষ্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান ওয়াই ভি সুব্বা রেড্ডি এই দাবি নিয়ে সোমবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণের সঙ্গে দেখা করেছেন। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে সুব্বা রেড্ডি জানিয়েছেন গত চার বছর ধরে ট্রাষ্টের কাছে ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোটে এই টাকা পড়ে আছে।

অর্থমন্ত্রীকে তিনি আরও জানান কোভিড-১৯-এর কারণে মন্দিরের আয় কমে গেছে এবং এই সময়ে ওই ব্যান হয়ে যাওয়া টাকা যদি বর্তমান বাজার চালু টাকায় রূপান্তরিত করে দেওয়া হয় তাহলে এই ক্ষতি কিছুটা মেটানো যেতে পারে।

উল্লেখ্য ২০১৬ সালের ৮ ডিসেম্বর দেশে ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল করার ঘোষণা করে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার।

সুব্বা রেড্ডির বক্তব্য অনুসারে, ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের পরেও বহু ভক্ত মন্দিরে ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোটে প্রণামী দিয়েছেন। যা কোনোভাবেই ব্যাঙ্কে বদল করা সম্ভব হয়নি। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর কাছে তাঁর অনুরোধ যদি কোনোভাবে এই বাতিল নোট বদল করে দেওয়া যায় তাহলে আর্থিক ক্ষতির হাত থেকে বাঁচবে তিরুপতি মন্দিরের থিরুমালা তিরুপতি দেবস্থানম ট্রাষ্ট।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in