ইচ্ছাকৃতভাবে তাঁর কারখানায় অশান্তি সৃষ্টি করা হচ্ছে অভিযোগ তুলে ভিন রাজ্যে চলে যাওয়ার হুমকি দিলেন উত্তরবঙ্গের এক শিল্পদ্যোগী। অভিযোগ, পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব তার ফুলবাড়ীর কারখানা দখল নিতে চাইছেন। যা তিনি কোনওভাবেই মেনে  নেবেন না। তার হুঁশিয়ারি প্রয়োজনে ভিন রাজ্যে ব্যবসা গুটিয়ে চলে যাবেন। দ্রুত সমস্যার নিষ্পত্তি চেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বারস্থ হয়েছেন ওই ব্যক্তি।

শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠক করেন শিলিগুড়ি সংলগ্ন ফুলবাড়ির ‘গ্রিনজেন বায়ো প্রাইভেট লিমিটেড’-এর কর্ণধার শিল্পদ্যোগী রমাকান্ত বর্মন। রমাকান্তবাবু জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার তাঁর ভাই শশিকান্ত বর্মন ও সংস্থার এক সুপারভাইজার মণিকান্ত রায়কে অপহরণ করে আমবাড়িতে তুলে নিয়ে মারধরের ঘটনার পর ভয়ে ছিলেন। শঙ্কা ছিল তাঁকেও মারধর করা হবে। শুধুমাত্র সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে শিলিগুড়িতে এসেছেন। তিনি ভরসা দিয়েছেন। এরপরই অভিযোগ করেন, ফুলবাড়িতে পর্যটনমন্ত্রী যে ভূমিকা নিয়েছেন শিল্পমহলে খারাপ বার্তা যাবে। সেখানে পুলিশকে নিষ্ক্রিয় রেখে দুষ্কৃতীদের দিয়ে কারখানার দখল নিয়েছেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যখন পাশে দাঁড়িয়ে শিল্প গড়তে সাহায্য করছেন তখন পর্যটনমন্ত্রীর এমন উলটো ভূমিকা কেন তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে ফুলবাড়িতে গ্রিনজেন বায়ো প্রাইভেট লিমিটেড’-এর বর্জ্য প্রক্রিয়াকরণ কারখানাটি তৈরি হয়। উত্তরবঙ্গের আটটি জেলার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালের বর্জ্য ওই কারখানায় জমা হয়। ফুলবাড়ি ছাড়াও রমাকান্তবাবুদের কলকাতায় আরও একটি কারখানা চালু রয়েছে। আরও আটটি কারখানা তৈরির কাজ চলছে। সব মিলিয়ে বিনিয়োগের পরিমাণ প্রায় দুশো কোটি টাকা। সেখানে এক হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ মিলবে। শিল্পদ্যোগী দাবি করেন, রাজ্যের অন্য কোথাও সমস্যা নেই। যদিও শিল্পদ্যোগীর অভিযোগ নিয়ে মুখ খুলতে অস্বীকার করেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। তিনি বলেন, “বিষয়টি নিয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। আমি কোনও মন্তব্য করব না।“


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন