দক্ষিণবঙ্গে পাকাপাকিভাবে ঢুকল বর্ষা। শনিবার থেকে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের আকাশে যে মেঘ দেখা দিয়েছে, তা বর্ষার মেঘ বলে আলিপুর আবহাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে। হাওয়া অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরের ওপর থাকা ঘূর্ণাবর্ত বাংলাদেশ লাগোয়া উত্তর বঙ্গোপসাগরের ওপর এসে পৌঁছেছে। রবিবারের মধ্যে সেই ধূর্ণাবর্ত ঘনীভূত হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। এর জেরে এদিন এবং আগামীকাল সোমবারও কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে বলে এ দিন আলিপুর আবহাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে।

ঘূর্ণাবর্তের জেরে শনিবার থেকেই কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলা পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বৃষ্টি শুরু হয়েছে। এ ছাড়াও, হাওড়া, হুগলি, নদিয়ার বেশকিছু জায়গাতেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে। এ দিন সকাল থেকেই আকাশ ছিল মেঘলা। দুপুরের পর থেকেই দফায় দফায় নামে বৃষ্টি। একাধিক জায়গায় ভারী বৃষ্টি হয়েছে। এর জেরে এ দিন বেহালা, নিউ আলিপুৱ সহ কলকাতার একাধিক নিচু এলাকা জলমগ্ন হয়ে যায়। এর ফলে বিভিন্ন জায়গায় যানজট দেখা দেয়। পুরসভার তৎপরতায় জল নামানো হয়।

প্রসঙ্গত, জুলাই মাসের প্রথম থেকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া অফিস। এ বিষয়ে আলিপুর আবহাওয়া অফিসের অধিকর্তা জি কে দাস জানিয়েছেন, বঙ্গোপসাগরের ওপর থাকা ঘূর্ণাবটি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শক্তিশালী নিম্নচাপে পরিণত হয়ে যাবে। তার হাত ধরেই দক্ষিণবঙ্গে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু আরও শক্তিশালী হয়ে উঠেছে। এর ফলে আজ রবিবার হাওড়া, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, দুই মেদিনীপুর এবং আগামী সোমবার বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, প্রভৃতি ভেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে। এই সমস্ত জেলাতে আগামী দুদিন ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন