কে কত বেশি ভোটে প্রার্থীকে জেতাতে পারে তা নিয়ে জলপাইগুড়ি ব্লক ২ এর মধ্যে অঞ্চলে অঞ্চলে কর্মীদের মধ্যে কার্যত প্রতিযোগিতার ডাক দিলো তৃণমূল। বিরোধীরা এই উপহারের ঘোষণাকে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের আওতায় ফেলতে চাইছেন। তাঁদের বক্তব্য, এভাবে বেশি ভোটে জেতানোর ডাককে ঘিরে এলাকায় উত্তেজনা সৃষ্টি হবে। যেন তেন প্রকারেণ বেশি ভোটে প্রার্থীকে জেতাতে গিয়ে বিঘ্নিত হতে পারে আইন শৃঙ্খলা।

সোমবার তৃণমূলের সদর সাংগঠনিক ব্লক ২ র মধ্যে অরবিন্দ,বাহাদুর,বেলাকোবা,পাতকাটা,পাহাড়পুর এবং বারোপোটিয়া নতুনবস এই ৬ টি অঞ্চল বা গ্রাম পঞ্চায়েত নিয়ে এক কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হয়। এই সভাতে দলীয় কর্মী এবং অঞ্চলগুলির নেতৃত্বের উপস্থিতিতে এই পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। দলের অভ্যন্তরীণ সভাতেই এই পুরষ্কার ঘোষণা করেন জলপাইগুড়ি তৃণমূল এর ব্লক ২ এর সভাপতি নিতাই কর। 

এদিন নিতাই বাবু জানান গত ২০১৪ র লোকসভা নির্বাচন,২০১৬ র বিধানসভা এবং গত বছরের পঞ্চায়েত নির্বাচনে এই ৬টি অঞ্চলে আমরা ভাল ফলাফল করেছি।কিন্তু এবারের লোকসভা নির্বাচনে এই ৬ টি অঞ্চলের মধ্যে যে অঞ্চল সবচেয়ে বেশী মার্জিনে আমাদের প্রার্থীকে জেতাবে দলের পরিচালনার সুবিধার্থে সেই অঞ্চলকে একটি মোটরবাইক দেওয়া হবে।

তিনি আরও ঘোষণা করেন, ৬ অঞ্চলের মধ্যে প্রতি অঞ্চল থেকে যে বুথ সবচেয়ে বেশী ব্যবধানে প্রার্থীকে জেতাবে সেই ৬ টি বুথকে একটি করে স্মার্ট ফোন দেওয়া হবে দলের কাজ পরিচালনার জন্য।

এই বিষয়ে জলপাইগুড়ি কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী বিজয়চন্দ্র বর্মন জানান, ভোট নিয়ে উৎসব শুরু হয়ে গিয়েছে। এটা আমাদের নিজেদের কর্মীদের মধ্যে একটা ভোট বেশি করানোর প্রতিযোগিতা। এই উপহারের ফলে দলীয় কর্মীরা আরো উজ্জীবিত হবেন। নিতাই এর এই ঘোষণায় আমি খুব খুশি।

(ছবি প্রতীকী)

 

 


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন