বামেদের অভিনব প্রতিবাদে বিস্মিত জলপাইগুড়ি শহরবাসী। শুক্রবার বাম কর্মী সমর্থকদের অভিনব প্রতিবাদের সাক্ষী রইলো জলপাইগুড়ি শহরের মানুষ।

এদিন জলপাইগুড়ি শহরের কদমতলা মোড়ের কাছে মাদ্রাসা ময়দানে বামেদের নির্বাচনী সমাবেশ ছিলো বিকেল ৪টেয়। এই সমাবেশে উপ্সথিত থাকার কথা ছিলো সিপি আই(এম) রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র সহ রাজ্য বামফ্রন্ট নেতৃত্বের।

নির্বাচনী সমাবেশ উপলক্ষ্যে বাম কর্মীদের প্রস্তুতি ছিলো সকাল থেকেই। কিন্তু দুপুরের দিকে সমস্ত মাইক খুলে নিতে নির্দেশ দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এক্ষেত্রে বাম নেতৃত্বের অভিযোগ, দুপুরের পরে প্রশাসনিক স্তর থেকে জানানো হয় কোনো লাইটপোস্টে মাইক লাগানো যাবেনা।

   

বাম নেতৃত্ব আরও জানিয়েছেন, আচমকা প্রশাসনিক স্তরে এই নির্দেশে বিপাকে পড়েন বাম নেতৃত্ব। এরপরই এগিয়ে আসেন বাম কর্মী সমর্থকরা। রাস্তার মোড়ে মোড়ে কাঁধে মাইক নিয়ে দাঁড়িয়ে পড়েন তাঁরা।

বামকর্মীদের এভাবে রাস্তায় মাইক কাঁধে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে স্তম্ভিত হয়ে যান সাধারণ মানুষ। এরপরই পথচলতি মানুষজন বাম কর্মীদের উদ্দেশ্যে সহমর্মিতা দেখিয়ে কেউ এগিয়ে দেন জলের বোতল, কেউ বা লজেন্স।

শহরের সাধারণ মানুষ এভাবে পাশে এসে দাঁড়ানোয় আপ্লুত বাম কর্মী সমর্থকরা। তাঁরা জানাচ্ছেন, প্রশাসনের কাছ থেকে প্রয়োজনীয় অনুমতি নিয়েই সভার কাজ করা হয়েছিলো। তবুও সভা শুরুর কিছুক্ষণ আগে প্রশাসনের কাছ থেকে মাইক লাগানোয় বাধা আসে। তখনই আমরা ঠিক করি নিজেরাই মাইক কাঁধে করে রাস্তায় দাঁড়াবো। নেতৃত্বের অনুমতি পাবার পর আমরা সেভাবেই রাস্তায় দাঁড়িয়ে পড়ি। সমাবেশ চলাকালীন যেভাবে সাধারণ পথচলতি মানুষ আমাদের অভিনন্দিত করেছেন তাতে আমরা আপ্লুত।

 


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন