CPIM-র যুব সংগঠন DYFI-র রাজ্য সম্পাদক মীনাক্ষী, রাজ্য কমিটিতে অর্ধেকের বেশি নতুন মুখ

এই প্রথম কোনও মহিলা মুখকে রাজ্য সম্পাদক করা হল। যদিও এই সিদ্ধান্ত অপ্রত্যাশিত নয়। আলিমুদ্দিনে তাঁকে নিয়ে দ্বিমত ছিল না।
CPIM-র যুব সংগঠন DYFI-র রাজ্য সম্পাদক মীনাক্ষী, রাজ্য কমিটিতে অর্ধেকের বেশি নতুন মুখ
মীনাক্ষী মুখার্জিসৌজন্যে- ফেসবুক প্রোফাইল

যে কোনও রাজনৈতিক দলের যুব সংগঠনের উপর শীর্ষ নেতৃত্বের নজর থাকে বরাবর। এই যুব সংগঠন কীভাবে চলবে, তা নির্ভর করে সংগঠনের মাথায় কাকে বসানো হবে তার উপর। এবার সিপিএমের যুব সংগঠনের দায়িত্বের রদবদল হল।

দুদিন ধরে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে জেলার ১৯তম যুব সম্মেলন চলার পর সোমবার দুপুরে তালিকা প্রকাশ হল। তালিকা তৈরিতে মাথায় রাখা হল বয়সকে। দলীয় নিয়ম অনুযায়ী, বয়স চল্লিশ পেরোলেই তাঁকে আর যুব সংগঠনে রাখা হয় না। সেই অনুযায়ী, ডিওয়াইএফআই রাজ্য সম্পাদক সায়নদীপ মিত্র ৪০ পেরিয়েছেন। তাই বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম কেন্দ্রের প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়কে যুব সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক করা হল।

এই প্রথম কোনও মহিলা মুখকে রাজ্য সম্পাদক করা হল। যদিও এই সিদ্ধান্ত অপ্রত্যাশিত নয়। আলিমুদ্দিনে তাঁকে নিয়ে দ্বিমত ছিল না। শোনা যাচ্ছে, দলের তরফে যুব সংগঠনের দায়িত্বে থাকা মহম্মদ সেলিম চেয়েছিলেন সম্পাদক হোন জেলার কেউ। তাঁর ইচ্ছেতেই সিলমোহর পড়ল। রাজ্য সভাপতি হলেন মুর্শিদাবাদের ধ্রুবজ্যোতি সাহা।

জানা গেছে, যুবশক্তির সম্পাদক, ঢাকুরিয়ার ছেলে কলতান দাশগুপ্তকে রাজ্য সভাপতি পদে চেয়েছিলেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর কলকাতা সংলগ্ন অনেক জেলার নেতাই। শেষপর্যন্ত কলতানকে সহ সম্পাদক হয়েছেন। সেই সঙ্গে যুবশক্তি পত্রিকার সম্পাদক পদ রইল তাঁর। কোষাধ্যক্ষ হয়েছেন অপূর্ব প্রামাণিক।

সংগঠনের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর ২৫ জনের মধ্যে নতুন মুখ ১৪ জন। সম্মেলনে যে রাজ্য কমিটি তৈরি হয়েছে, সেখানেও ৬০ শতাংশের বেশি নতুন অন্তর্ভুক্তি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.