উপনির্বাচনে মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতে চায় না কংগ্রেস, ফের জানালেন অধীর চৌধুরী

মঙ্গলবার দিল্লিতে ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে বৈঠক করেন সনিয়া গান্ধী। এই প্রসঙ্গে অধীর চৌধুরীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন, 'আমি আদার ব‍্যাপারি, জাহাজের খবর রাখি না।'
উপনির্বাচনে মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতে চায় না কংগ্রেস, ফের জানালেন অধীর চৌধুরী
অধীর রঞ্জন চৌধুরীফাইল ছবি সংগৃহীত

উপনির্বাচনে আপত্তি নেই তবে সাধারন মানুষের স্বাস্থ্যের ওপর প্রাধান্য দেওয়া বেশি প্রয়োজন। উপনির্বাচন প্রসঙ্গে আজ একথা বললেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা বহরমপুর সংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

বুধবার কলকাতায় বিধান ভবনে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসেছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। বৈঠক শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে অধীর বলেন, 'নির্বাচন আসবে যাবে। কিন্তু মানুষের স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে কোনোরকম খেলা করা যাবে না।'

রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস তৃতীয় বার ক্ষমতায় এলে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করা হয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর কাছে পরাজিত হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৬ মাসের মধ্যেই যে কোনো কেন্দ্র থেকে দাঁড়িয়ে ভোটে জিতে ফের মুখ্যমন্ত্রী পদে ফিরতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তাই দ্রুত উপ নির্বাচন সম্পন্ন করতে চাইছে তৃণমূল। কিন্তু রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির জন্য তা হচ্ছে না।

এই প্রসঙ্গে অধীর চৌধুরী বলেন, "স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করেই উপনির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক করা হোক। ভোট হলেও তৃণমূল থাকবে ভোট না হলেও তৃণমূল থাকবে সুতরাং মানুষের স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে যেন কোনভাবে খেলা করা হয়। কারণ আমরা দেখেছি গত নির্বাচনে মানুষের কতটা ক্ষতি হয়েছিল। করোনার তৃতীয় ঢেউ আসতে চলেছে। তাই যথেষ্ট সতর্কতার সঙ্গে সবটাই বিবেচনা করে দেখতে হবে।'

পাশাপাশি তিনি এদিন আরো একবার স্পষ্ট করে দেন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তাঁরা কোনো প্রার্থী দেবেন না। তিনি বলেন,‌ 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেহেতু ইতিমধ্যে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন, তাই তাঁর বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতে চাই না। কিন্তু অন্যান্য উপ নির্বাচন কেন্দ্রের প্রার্থী দেওয়া হবে।'

এদিন বিধানভবনে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হয়। প্রথমে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে ও পরে এআইসিসি-এর সঙ্গে বৈঠক হয়। বৈঠকে দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা হবার বার্তা দেন অধীর। বিধানসভা নির্বাচনের ভরাডুবির পর মনোবল প্রায় তলানিতে। তাই আগামীদিনে কর্মসূচি ও জনসংযোগকে হাতিয়ার করে এগিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন অধীর।

মঙ্গলবার দিল্লিতে ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে বৈঠক করেন সনিয়া গান্ধী। এই প্রসঙ্গে অধীর চৌধুরীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন, 'আমি আদার ব‍্যাপারি, জাহাজের খবর রাখি না।' অর্থাৎ দল তাঁকে যতটুকু দায়িত্ব দেবে তা পালন করবেন তিনি। এর বাইরে তিনি কিছু জানেন না।

অন্যদিকে আইএসএফ প্রসঙ্গে এদিন ফের একবার নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন অধীর চৌধুরী। তিনি জানান বিধানসভা ভোটের সময় বামেদের সঙ্গে তাদের জোট হয়েছিল। কংগ্রেসের সঙ্গে কোন জোট ছিল না আইএসএফ-এর। কিন্তু অদূর ভবিষ্যতে তাদের সঙ্গে জোট হবে না সেরকম কিছু বলা যায় না।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in