২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের ইন্টারভিউয়ের জন্য বিজ্ঞপ্তি কোথায়? প্রশ্ন হাইকোর্টের

পাশাপাশি প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে পর্ষদ কী ভাবছে, তারও বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা দরকার। এমনটাই জানালেন বিচারপতি অমৃতা সিং। আজ এব্যাপারে পর্ষদ তাদের মতামত জানাবে।
২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের ইন্টারভিউয়ের জন্য বিজ্ঞপ্তি কোথায়? প্রশ্ন হাইকোর্টের
কলকাতা হাইকোর্টফাইল ছবি সংগৃহীত

অস্বচ্ছতা ও অনিয়মের অভিযোগে একের পর এক মামলা। আর তার জেরে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে বহুদিন ধরে। কবে এই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে, কবে নিয়োগপত্র মিলবে, এবার আমজনতার পাশাপাশি সেই প্রশ্ন তুলল কলকাতা হাইকোর্ট। টেট উত্তীর্ণদের ইন্টারভিউ নিয়ে বিজ্ঞপ্তি দরকার। পাশাপাশি প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে পর্ষদ কী ভাবছে, তারও বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা দরকার। এমনটাই জানালেন বিচারপতি অমৃতা সিং। আজ এব্যাপারে পর্ষদ তাদের মতামত জানাবে।

প্রাথমিক স্কুলের ৭৩৮টি শূন্যপদের জন্য ২০১৪ সালের টেটের ইন্টারভিউয়ের তালিকা পর্ষদ সম্প্রতি প্রকাশ করে। টেটের প্রশ্নপত্র ভুল থাকায় কম নম্বর দেওয়া হয়েছে, অভিযোগ তুলে সেই তালিকার বিরোধিতা করেন তিনজন চাকরিপ্রার্থী। তাঁরা হাইকোর্টে মামলা করেন। তাঁদের হয়ে মামলা লড়েন আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য, দিব্যেন্দু চট্টোপাধ্যায় ও রেশমী ঘোষ। এর আগে হাইকোর্ট সেই নম্বর যোগ করে ফের তালিকা প্রকাশ করতে বললেও তা হয়নি। তাই ইন্টারভিউয়ের তালিকায় ওই মামলাকারী প্রার্থীদের নামও নেই।

এ দিন শুনানিতে পর্ষদের কৌঁসুলি লক্ষ্মী গুপ্ত জানান, মামলাকারীদের নম্বর দেওয়া হবে এবং ইন্টারভিউয়ে ডাকাও হবে তাঁদের। বিচারপতিরা প্রশ্ন তোলেন যে, এরপর অন্য কোনও প্রার্থী যদি একই দাবি নিয়ে আসেন, তাহলে কি মামলা চলতেই থাকবে? আর তার ফল ভুগতে হবে বাকি প্রার্থীদের?

আদালত জানিয়েছে, একই বিষয়ে ভুক্তভোগীরা বারবার আদালতের দ্বারস্থ হবেন আর পর্ষদ সেই মামলার ভিত্তিতে নিজেদের সিদ্ধান্ত জানাবে, তা হয় না। প্রার্থীদের যাতে আদালতের দ্বারস্থ না হতে হয়, তার জন্য ব্যবস্থা করা দরকার। পর্ষদের উচিত, এই ব্যাপারে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে যোগ্য প্রার্থীদের ইন্টারভিউয়ে ডাকা।

প্রসঙ্গত, প্রাথমিকে নিয়োগ-জট কবে কাটবে, আদৌ কাটবে কিনা, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জট। স্বচ্ছতার প্রশ্ন ওঠা, নিয়োগে দেরি হওয়া-এসব নিয়ে বহুবার প্রার্থীরা আলাদা হয়েছেন। তার জেরে পর্ষদকে বারবার আদালতে ভর্ৎসনাও শুনতে হয়েছে। বেড়েছে জট।

 কলকাতা হাইকোর্ট
SSC গ্রুপ ডি নিয়োগ-দুর্নীতি মামলায় সিবিআই তদন্তে স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in