শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা আরও বাড়ালেন দিলীপ ঘোষ
ফাইল ছবি সংগৃহীত

শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা আরও বাড়ালেন দিলীপ ঘোষ

আমরা দরজা বড়ো করে রেখেছি সবাইকে নেওয়ার জন্য। ওনারা যদি কাউকে বিজেপিতে পাঠিয়ে দেন, দেবেন। একজন রাজনীতিবিদ রাজনীতি করতে চাইলে বিজেপি তাঁকে সুযোগ দেবে। শুভেন্দু অধিকারী সম্পর্কে রাজ্য রাজনীতিতে চলা জল্পনা আরও উসকে দিয়ে রবিবার সকালে এই মন্তব্য করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

সম্প্রতি তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা তথা রাজ্য মন্ত্রীসভার সদস্য শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে বেজায় বিপাকে পড়েছে তৃণমূল। কারণ তৃণমূল শিবিরের সেই কোন্দল এখন কার্যত প্রকাশ্যে এসে গেছে। আর তাতেই বেশ কয়েকদিন ধরে বঙ্গ রাজনীতিতে জোর গুঞ্জন উঠেছে, বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন শুভেন্দুবাবু।

গত কয়েকদিন ধরেই 'আমরা দাদার অনুগামী' ব্যানারে শুভেন্দু অধিকারী একাধিক সভা করেছেন। আর তাৎপর্যপূর্ণভাবে সভায় একবারও তৃণমূল নেত্রীর নামটুকুও নিচ্ছেন না শুভেন্দু অধিকারী। রাজ্যের আর এক মন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম শুভেন্দুকে নিয়ে নানা তির্যক মন্তব্যও করেছেন। পাল্টা শুভেন্দু অধিকারীও কারও নাম না করে মন্তব্য করেন, "প্যারাস্যুটে নামিনি। লিফটে উঠিনি। সিঁড়ি ভেঙে উঠেছি। ছোটলোকদের নিয়ে কথা বললে আমি তার উত্তর দিই না। আশ্চর্য হয়ে যাচ্ছি, কেউ কেউ অতীত ভুলে যায়।"

এমন এক ঘোরালো পরিস্থিতিতে আরও একটু ঘি ঢাললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। রবিবার সকালে নিউটাউনের ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমণের পর সুলঙগুড়িতে চা চক্রে ফিরহাদ হাকিমের নাম না করে দিলীপ ঘোষ বলেন, ওনারা ওকে বিজেপিতে পাঠিয়েই দেবেন।

উল্লেখ্য, ববি হাকিম বলেন শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে গিয়ে বিজেপির রাজ্য সদর দপ্তর মুরলিধর সেন স্ট্রিটে বসাক। সেই মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই দিলীপ ঘোষ এদিন শুভেন্দু অধিকারী প্রসঙ্গে একথা বলেন। যদিও দিলীপ ঘোষ স্পষ্ট করে দেন যে, এখনও তাঁর সঙ্গে এ ব্যাপারে কারও কোনো আলোচনা হয়নি। প্রসঙ্গত, আজ মেদিনীপুর রওনা দেবেন দিলীপবাবু। রাজ্যে ৫ ও ৬ তারিখ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আসছেন। সেজন্য মেদিনীপুর জেলা বিজেপির কার্যকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করবেন তিনি।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in