Maharastra: জোট সরকারের সামনে কোনো সংকট নেই - দাবি কংগ্রেসের
মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেফাইল ছবি সংগৃহীত

Maharastra: জোট সরকারের সামনে কোনো সংকট নেই - দাবি কংগ্রেসের

শিবসেনা বিধায়ক পরামর্শ দিয়েছিলেন দলীয় নেতাদের কেন্দ্রীয় সংস্থার হেনস্থার হাত থেকে বাঁচাতে সেনার উচিত বিজেপির সঙ্গে জোটে ফেরা। দলীয় বিধায়কের এই পরামর্শে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকার করে শিবসেনা

গতকালই মহারাষ্ট্রের শিবসেনা বিধায়ক পরামর্শ দিয়েছিলেন দলীয় নেতাদের কেন্দ্রীয় সংস্থার হেনস্থার হাত থেকে বাঁচাতে শিবসেনার উচিত বিজেপির সঙ্গে জোটে ফিরে যাওয়া। দলীয় বিধায়কের এই পরামর্শ প্রসঙ্গে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকার করে শিবসেনা এবং এটি তাঁর ব্যক্তিগত মত বলে জানানো হয়। এই ঘটনায় সোমবার মহারাষ্ট্র কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে উদ্ধব ঠাকরের নেতৃত্বাধীন মহা বিকাশ আঘাদির সরকারের সামনে কোনো সমস্যা নেই।

গত ৭ মাস ধরে ইডি-র তদন্তের মুখোমুখি হতে হচ্ছে রাজ্যের থানে ওভালা-মাজিওয়াড়া কেন্দ্রের বিজেপি বিধায়ক প্রতাপ সরনায়েক ও তাঁর পরিবারকে। এরপরেই তিনি উদ্ধব ঠাকড়েকে এক চিঠিতে জানান শিবসেনার উচিত বিজেপির সঙ্গে জোটে ফিরে যাওয়া।

গত ১০ জুন মুখ্যমন্ত্রীর অফিসে পৌঁছানো এক চিঠিতে সেনা বিধায়ক প্রতাপ সারনায়েক লিখেছেন, "বেশ কয়েকটি কেন্দ্রীয় সংস্থা আমার এবং অন্যান্য শিবসেনা নেতা যেমন অনিল পরব, রবীন্দ্র ওয়াকারের পিছনে পড়ে রয়েছে। আমাদের এবং আমাদের পরিবারের সদস্যদের বিভিন্নভাবে হেনস্থা করছে।"

মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে
Maharashtra: কেন্দ্রীয় সংস্থার হয়রানি থেকে বাঁচতে বিজেপির সাথে হাত মেলানো উচিত দলের: সেনা MLA

তিনি আরও জানিয়েছেন, "যদি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে আবার হাত মেলানো যায় তাহলে খুব ভালো হয়। শিব সৈনিকরা মনে করছেন একমাত্র এর দ্বারাই সেনা নেতাদের সমস্যার হাত থেকে বাঁচানো যাবে।"

উল্লেখযোগ্য ভাবে শিবসেনা বিধায়কের এই মন্তব্য প্রকাশ্যে আসার পর মহারাষ্ট্র কংগ্রেসের মুখপাত্র শচীন সাওয়ন্ত বলেন – এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে মোদী সরকার কীভাবে বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংস্থাকে ব্যবহার করে মহারাষ্ট্রে কোয়ালিশন সরকার ফেলতে চাইছে। এরা যে কোনো মূল্যে মহারাষ্ট্রে ক্ষমতা দখল করতে চায়।

অন্যদিকে কিশোর তেওয়ারী জানিয়েছেন, বিভিন্ন আঞ্চলিক দলের শক্তিবৃদ্ধিতে বিজেপি খুবই চিন্তিত হয়ে পড়ছে। মোদী সরকার আঞ্চলিক দলগুলোকে এখন চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছে।

- with IANS input

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in