Jharkhand: মুখ্যমন্ত্রীর ভাইয়ের বিধায়কপদ খারিজ নিয়ে শুনানি শেষ, রাজ্যপালকে মতামত জানাল EC!

বসন্ত সোরেনের নামে এক খনি সংস্থার মালিকানা আছে। নির্বাচনী হলফনামায় তিনি তা গোপন করেছেন। বিজেপির তরফে এই অভিযোগ ওঠার পরেই নড়েচড়ে বসেন রাজ্যপাল রমেশ বাইস।
বসন্ত সোরেন, হেমন্ত সোরেন
বসন্ত সোরেন, হেমন্ত সোরেনগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা (JMM)-র বিধায়ক বসন্ত সোরেনের বিধায়কপদ খারিজ নিয়ে শুনানি শেষ করে, রাজ্যপাল রমেশ বাইসের কাছে নিজেদের মতামত পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন (EC)।

এক প্রতিবেদনে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের ভাই বসন্ত সোরেনের অযোগ্যতা ঘোষণা নিয়ে গত ২৯ আগস্ট শুনানি শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন। তারপর, শুক্রবার রাতে রাজ্যপাল বাইসকে নিজেদের মতামত জানিয়েছে EC।

বসন্ত সোরেনের নামে এক খনি সংস্থার মালিকানা আছে। নির্বাচনী হলফনামায় তিনি তা গোপন করেছেন। বিজেপির তরফে এই অভিযোগ ওঠার পরেই নড়েচড়ে বসেন রাজ্যপাল রমেশ বাইস। ১৯৫১ সালের জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ৯-এ (9A) ধারা অনুসারে বসন্তের অযোগ্যতা (বিধায়কপদ খারিজ) দাবি করে রাজ্য বিজেপি সদস্যরা যে অভিযোগ দায়ের করেন, তাঁর ভিত্তিতে কমিশনের দৃষ্টিভঙ্গি জানতে চান রাজ্যপাল বাইস।

জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ৯-এ (9A) ধারা অনুসারে, কোনও নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ‘পন্য সরবরাহ’ বা ‘নিজেদের দায়িত্বে অন্য কোনও কাজের জন্য’ রাজ্য সরকারের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হতে পারেন না। আর, তা হলে নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধিকে ‘অযোগ্য’ ঘোষণা করতে পারেন।

এমনিতেই, ক্ষমতার অপব্যবহার করে পাথর খনির ইজারা দেওয়ার জন্য ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের বিধায়কপদ খারিজের দাবি জানিয়েছে বিজেপি।

সূত্রের খবর, এই ইস্যুতে গত সপ্তাহে নির্বাচন কমিশন হেমন্তকে অযোগ্য বলে ঘোষণা করেছে। তবে, তা নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেননি রাজ্যপাল রমেশ বাইস। যা নিয়ে ইতিমধ্যে রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়েছে। এরই মাঝে, বসন্তের ব্যাপারে নিজেদের মতামত পাঠাল নির্বাচন কমিশন।

উল্লেখ্য, সংবিধানের ১৯২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনের মতামতের ভিত্তিতে নির্বাচিত যে কোনো জনপ্রতিনিধিকে অযোগ্য ঘোষণা করার ক্ষমতা রয়েছে রাজ্যপালের।

এক্ষেত্রে হেমন্ত সোরেন এবং বসন্ত সোরেনের বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হলে নির্বাচন কমিশনের মতামতের ভিত্তিতে তাঁদের বিধায়ক পদ খারিজ করতে পারেন রাজ্যপাল।

বসন্ত সোরেন, হেমন্ত সোরেন
'পুরানো পেনশন স্কিম' ফেরানোর দাবিতে যোগী রাজ্যে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক শিক্ষক - সরকারী কর্মচারীদের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in