জালিয়াতির মাধ্যমে মদের লাইসেন্স পাওয়ার চেষ্টা! স্মৃতি ইরানির পারিবারিক রেস্তোরাঁকে নোটিশ প্রশাসনের

অভিযোগ, বিতর্কিত পদ্ধতিতে মৃত ব্যক্তির নামে মদের লাইসেন্স পুনর্নবীকরণ করেছেন স্মৃতি ইরানির মেয়ে জোয়েশ ইরানি। ২৯ জুলাই এই মামলার শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি ফাইল ছবি

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির মেয়েকে শোকজ নোটিশ পাঠালেন গোয়ার এক্সাইজ কমিশনার। উত্তর গোয়ার আসাগাও-তে একটি রেস্টুরেন্ট রয়েছে স্মৃতি ইরানির মেয়ে জোয়েশ ইরানির। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিতর্কিত পদ্ধতিতে মৃত ব্যক্তির নামে মদের লাইসেন্স পুনর্নবীকরণ করেছেন তিনি।

২১ জুলাই গোয়ার এক্সাইজ কমিশনার নারায়ণ এম গ্যাদ আইনজীবী আইরেস রড্রিগেসের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে জোয়েশ ইরানি পরিচালিত সিলি সোলস ক্যাফে অ্যান্ড বার-কে শোকজ নোটিশ পাঠান। আইনজীবীর অভিযোগ, জালিয়াতির মাধ্যমে নকল নথি তৈরি করে মদের লাইসেন্স পাওয়ার চেষ্টা করছেন মন্ত্রী-কন্যা।

শোকজ নোটিশে বলা হয়েছে, "গতমাসে লাইসেন্স পুনর্নবীকরণ করা হয়েছে। যদিও লাইসেন্স হোল্ডার গত বছরের ১৭ মে মারা গিয়েছেন। এটা কিভাবে সম্ভব?"

আবগারি দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, লাইসেন্স পুনর্নবীকরণের জন্য চলতি বছরের ২২ জুন আবেদন করা হয়েছিল। অ্যান্থনি দিগামার নামে আবেদন করা হয়েছিল। আবেদনে বলা ছিল, "দয়া করে এই লাইসেন্সটি ২০২২-২৩ সালের জন্য পুনর্নবীকরণ করবেন এবং আগামী ৬ মাসের মধ্যে এটি স্থানান্তর করবেন।"

রড্রিগেস RTI-এর মাধ্যমে জানতে পারেন, অ্যান্থনি দিগামা গত বছরই মারা গেছেন। এরপরই নোটিশ পাঠানো হয় জোয়েশ ইরানিকে।

RTI-এর মাধ্যমে আরও জানা গেছে, সিলি সোলস ক্যাফে অ্যান্ড বারের করা সমস্ত আবগারি আবেদনগুলো অ্যান্থনি দিগামার নামে করা হয়েছে, যাঁর আধার কার্ড ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে ইস্যু করা হয়েছিল এবং এই আধার কার্ড অনুযায়ী অ্যান্থনি মুম্বাইয়ের ভিলে পার্লের বাসিন্দা।

রড্রিগেস জানিয়েছেন, "খুব বড়ো একটা জালিয়াতি হয়েছে। আবগারি দপ্তর এবং আসাগাও পঞ্চায়েত একযোগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মেয়ে কর্তৃক করা এই জালিয়াতির তদন্ত করুক।"

আগামী ২৯ জুলাই এই মামলার শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি বা তাঁর পরিবারের কেউ এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in