GHI: এই অবনমন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকারের ব্যর্থতা - বিশ্ব ক্ষুধা সূচক প্রসঙ্গে কংগ্রেস
ছবি প্রতীকীছবি সংগৃহীত

GHI: এই অবনমন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকারের ব্যর্থতা - বিশ্ব ক্ষুধা সূচক প্রসঙ্গে কংগ্রেস

গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্স নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণের পথে হাঁটলো কংগ্রেস। শুক্রবার মহারাষ্ট্র কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিশ্ব ক্ষুধা সূচকের প্রসঙ্গ টেনে বিজেপির প্রতি আক্রমণ শানায় কংগ্রেস।

গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্স নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণের পথে হাঁটলো কংগ্রেস। শুক্রবার মহারাষ্ট্র কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বিশ্ব ক্ষুধা সূচকের প্রসঙ্গ টেনে বিজেপির প্রতি আক্রমণ শানায় কংগ্রেস। প্রসঙ্গত সম্প্রতি প্রকাশিত গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্স অনুসারে ভারত গত বছরের ৯৪ তম স্থান থেকে ১০১ তম স্থানে নেমে গেছে।

এদিন রাজ্য কংগ্রেসের মুখপাত্র শচীন সাওন্ত বলেন, অর্থনীতিতে পিছিয়ে পড়া, জিডিপিতে পিছিয়ে পড়া, টাকার দামে পিছিয়ে পড়ার পর এবার বিশ্ব ক্ষুধা সূচকেও ভারত পিছিয়ে পড়লো। ২০১৩ সালে যেখানে ভারত ৬৩ তম স্থানে ছিলো সেখানে ২০২১ সালে ১১৬ দেশের মধ্যে ভারত ১০১ স্থানে নেমে গেছে। ২০১২ সালে যেখানে ভারতের মোট সূচক ছিলো ৩৮.৮ তা ২০২১-এ কমে দাঁড়িয়েছে ২৭.৫।

কংগ্রেস মুখপাত্র বলেন, এই ব্যর্থতা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকারের ব্যর্থতা। প্রতিবেশী বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্তান লাগাতার ভারতের ওপরে অবস্থান করছে। বিশেষ করে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের অপুষ্টির ক্ষেত্রে গত পাঁচ বছরে ভারতের ফলাফল সবথেকে খারাপ।

তিনি আরও বলেন, মিড ডে মিল স্কিম থেকে পি এম পোষণ জাতীয় পুরোনো স্কিমের নাম বদল করে বাহবা কুড়োনো যথেষ্ট নয়। উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন যথাযথ পরিকল্পনা, তার প্রয়োগ এবং উন্নয়নের ইচ্ছা।

শচীন সাওন্তের বক্তব্য অনুসারে, বিশ্ব ক্ষুধা সূচক প্রমাণ করেছে উন্নয়ন সংক্রান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের যাবতীয় দাবি মিথ্যে। ভারতের থেকে ছোটো দেশও এখন ভারতের থেকে এগিয়ে।

সাওন্ত বলেন, মোদী সরকার করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ, লাখে লাখে মানুষ কাজ হারিয়েছেন। অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মীরা সাংঘাতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। ক্রমাগত মুদ্রাস্ফীতিতে দেশের মানুষের নাভিশ্বাস।

যদিও এদিনই গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্স প্রসঙ্গে প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। শুক্রবার নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রক কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড এবং ওয়েল্ট হাঙ্গার হিলফের প্রকাশিত গ্লোবাল হাঙ্গার রিপোর্ট ২০২১ -এর সমালোচনা করে, এটিকে "বাস্তবতা বিহীন" এবং "গুরুতর পদ্ধতিগত সমস্যা" বলে জানিয়েছে।

- with Agency Input

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in