Assam: গো-রক্ষার প্রস্তাবিত বিলে অনুমোদন মন্ত্রিসভার

গবাদি পশু রক্ষার জন্য প্রস্তাবিত বিলে অনুমোদন দিল অসম মন্ত্রিসভা। এই বিলের পোষাকি নাম আসাম গবাদিপশু সংরক্ষণ বিল, ২০২১। আগামী ১২ জুলাই অনুষ্ঠিত হওয়া বিধানসভা অধিবেশনে এই বিল পেশ করা হবে।
Assam: গো-রক্ষার প্রস্তাবিত বিলে অনুমোদন মন্ত্রিসভার
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

গবাদি পশু রক্ষার জন্য প্রস্তাবিত বিলে অনুমোদন দিল অসম মন্ত্রিসভা। এই বিলের পোষাকি নাম আসাম গবাদিপশু সংরক্ষণ বিল, ২০২১। আগামী ১২ জুলাই অনুষ্ঠিত হওয়া বিধানসভা অধিবেশনে এই বিল পেশ করা হবে। বুধবার সন্ধ্যায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন রাজ‍্যের সংসদীয় বিষয়ক মন্ত্রী পীযূষ হাজারিকা।

পীযূষ হাজারিকা জানিয়েছেন, "আমরা ইতিমধ্যেই এই বিলটির বিষয়ে ঘোষণা করেছিলাম। তবে এখন মন্ত্রিসভা এতে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদন দিয়েছে।"

গবাদি পশু সংরক্ষণের জন্য আইন প্রণয়ন করার সরকারের পরিকল্পনার কথা প্রথম ঘোষণা করেছিলেন রাজ‍্যপাল জগদীশ মুখী। মে মাসে তিনি এই বিলের কথা জানিয়েছিলেন। অসমে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে অবৈধ গবাদিপশু পাচার বন্ধের লক্ষ্যে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন মুখী।

তিনি বলেছিলেন, "প্রস্তাবিত বিলে রাজ‍্যের বাইরে গবাদি পশু পরিবহনের ওপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলা হয়েছে। এক্ষেত্রে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করবো এবং অপরাধীদের কঠোর শাস্তি দেব। একবার এই বিল পাশ হয়ে‌ গেলে, দেশের মধ্যে এই বিল পাশ করা রাজ‍্যের তালিকায় ঢুকে যাবে আসাম।"

এই বিল পাশের লক্ষ‍্যে শেষ দু'মাসে গবাদি পশু পাচারকারীদের বিরুদ্ধে অত‍্যন্ত কঠোর মনোভাব দেখিয়েছে বিজেপি শাসিত আসাম সরকার। রাজ‍্যে মাদকদ্রব্য পাচার ও গন্ডার শিকারের মতো সংগঠিত অপরাধের অবসান‌ ঘটানোর অংশ হিসেবে এই উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

এই সপ্তাহের শুরুতে অসমের‌ মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্ব শর্মা জানিয়েছেন, যারা গোরু পাচার করে তাদের যেকোনো মূল্যে ধরা হবে। গোরু আমাদের কাছে ভগবানের মতো। এরা আমাদের দুধ দেয়, গোবর (সার) দেয়, আমাদের কৃষিকাজে সাহায্য করে, ট্রাক্টরের আগে আমাদের পূর্বপুরুষরা গোরুর উপরেই নির্ভর করতেন।"

তবে সরকার জানিয়েছে, এই বিলে গোহত‍্যা নিষিদ্ধ করার উল্লেখ নেই। একটি সরকারি সূত্র জানিয়েছে, গোরু খাওয়া বা কাটার ওপর কোনো নিষেধাজ্ঞা থাকবে না। তবে হিন্দু এলাকায় এই ঘটনা যাতে না ঘটে তার উপর লক্ষ্য রাখা হবে। হিন্দুরা যেখানে বাস করে বা যেখানে গোরুকে পূজা করা হয় যেখানে যেন গোহত্যা না হয়।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in