অতি সংকটজনক অবস্থায় অসমের মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ। প্রতিমুহূর্তে স্বাস্থ্যের অবনতি হচ্ছে ৮৬ বছরের প্রবীণ কংগ্রেস নেতার। সূত্রের খবর তার শরীরের সমস্ত অঙ্গ বিকল হয়ে পড়ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে মেকানিক্যাল ভেন্টিলেশনে রেখে তাঁর চিকিৎসা করা চলছে। এদিনই রাতের দিকে তাঁর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী।

কৃত্রিম ভেন্টিলেশন এর মাধ্যমে তার শ্বাস-প্রশ্বাস চলছে। গুয়াহাটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন। এই হাসপাতালে একটি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর চিকিৎসার জন্য। রবিবার সেই মেডিক্যাল টিমের সঙ্গে কথা বলেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্বশর্মা। মেডিক্যাল টিমের সঙ্গে কথা বলার পর সাংবাদিকদের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্যের অবনতির খবর দেন তিনি।

তিনি জানান, এদিন দুপুর থেকে মুখ্যমন্ত্রী শারীরিক অবস্থার অবনতি শুরু হয়। আগামী কয়েক ঘন্টা তাকে কড়া নজরদারিতে রাখা হবে। পর্যাপ্ত পরিমাণে ওষুধে চলছে বলে জানা গিয়েছে। তবে তার শারীরিক অবস্থা এতটাই খারাপ যে তাকে অন্যত্র স্থানান্তর করা সম্ভব নয়। তবে গুয়াহাটি হাসপাতালের চিকিৎসকেরাও এইমসের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলছেন।

প্রসঙ্গত, গত আগস্টে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন বছর ছিয়াশির তরুণ গগৈ। বেশ কিছু শারীরিক সমস্যা থাকায় হাসপাতালে ভরতি হতে হয়। প্রায় দু’মাস সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। করোনা জয়ের পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন অক্টোবরের শেষদিকে। কিন্তু নভেম্বরের শুরুতেই করোনা পরবর্তী একাধিক উপসর্গ নিয়ে তাঁকে ভরতি করাতে হয় গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজে। সেখানেই চিকিৎসা চলছিল তাঁর। অবশেষে শনিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়া শুরু হয়।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন