নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহেই ঠান্ডায় জবুথবু রাজধানী দিল্লি। রবিবার দিল্লি সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৬.৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস। বিগত ১৭ বছর পর এত ঠান্ডা অনুভূত হচ্ছে রাজধানীতে। বিগত কয়েক বছরে নভেম্বর মাসে এত ঠান্ডা দিল্লিতে কখনো পড়েনি।

সূত্রের খবর, ২০০৩ সালের নভেম্বর মাসে শেষ এত ঠান্ডা পড়েছিল। বিগত ১৭ বছর পর এত ঠান্ডা অনুভূত হচ্ছে রাজধানীতে। গত শুক্রবার দিল্লির সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমেছিল ৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, ১৪ বছরে নভেম্বর মাসে এটাই ছিল সবচেয়ে শীতলতম দিন।

আইএমডি-র আঞ্চলিক পূর্বাভাস কেন্দ্রের প্রধান কুলদীপ শ্রীবাস্তব বলেছেন, ২০০৩ সালের নভেম্বরের পর থেকে এটি দিল্লির সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

সমভূমি এলাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস অথবা তার নীচে চলে গেলে তখনই তাকে শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ঘোষণা করা হয়। গত তিন দিন ধরে তাপমাত্রার পতন দেখে আবহবিদরা আশঙ্কা করছেন শীঘ্রই শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে দিল্লিতে। দিল্লির ছোট ছোট এলাকায় একদিন খুব ঠান্ডা পরলেই ওই এলাকায় শৈতপ্রবাহ বলে ঘোষণা করা হয়।

২০১৯ সালে নভেম্বর মাসে দিল্লিতে ঠান্ডা পড়ে ১১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০১৮ সালে ঠান্ডা ১০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০১৭ সালে ঠান্ডা পড়েছিলো ৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন