বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রের বিরুদ্ধে থাকা ফৌজদারি মানহানির মামলা বন্ধ করে দিয়েছে দিল্লির এক আদালত। দিল্লির স্বাস্থ‍্যমন্ত্রী ও আপ নেতা সত‍্যেন্দ্র জৈনের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার পর কপিল মিশ্রের বিরুদ্ধে থাকা মামলা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

২০১৭ সালে কপিল মিশ্রের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেছিলেন সত‍্যেন্দ্র জৈন। একটি সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও তাঁর বিরুদ্ধে মানহানিকর মন্তব্য করেছিলেন বিজেপি নেতা মিশ্র। বুধবার অতিরিক্ত মুখ্য মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বিশাল পাহুজার কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার বিষয়ে রাজি হন মিশ্র। এরপরই মামলা বন্ধ করে দেন বিচারক।

আদালত জানিয়েছে, "আসামী (কপিল মিশ্র) আদালতে বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন তিনি বিনা শর্তে ক্ষমা চেয়ে নিতে প্রস্তুত আছেন। অভিযোগকারীও (সত‍্যেন্দ্র জৈন) জানিয়েছেন, যেহেতু অভিযুক্ত আদালতের সামনে নিজের বিবৃতি দিয়েছেন, তিনিও অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেবেন।"

কপিল মিশ্র ও সত‍্যেন্দ্র জৈন - উভয়ের বক্তব্য রেকর্ড করার পর মামলা নিষ্পত্তি করে আদালত।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে একটি প্রেস কনফারেন্সে কপিল মিশ্র সত‍্যেন্দ্র জৈনের বিরুদ্ধে অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে ২ কোটি টাকার ঘুষ দেওয়ার অভিযোগ তোলেন। তাঁর আরও অভিযোগ, ৫০ কোটি টাকার বিনিময়ে কেজরিওয়ালের এক আত্মীয়ের একটি জমির চুক্তি করেছেন সত‍্যেন্দ্র জৈন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও তিনি দাবি করেছিলেন, কিছুদিনের মধ্যেই জেলে যাবে জৈন।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন