লোকসভায় পাশের পর আজ রাজ‍্যসভায় পেশ হলো‌ বিতর্কিত তিনটি কৃষি অর্ডিন্যান্সের‌ মধ‍্যে দুটি অর্ডিন্যান্স। পাঞ্জাব ও হরিয়ানায় কৃষকদের তীব্র আন্দোলনের মাঝেই কেন্দ্রীয় কৃষি ও কৃষক কল‍্যাণ উন্নয়ন মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর আজ রাজ‍্যসভায় দুটি অর্ডিন্যান্স পেশ‌ করেন। যে দুটি অর্ডিন‍্যান্স আজ ‌পেশ হয়েছে সেগুলো হলো- ফার্মার্স প্রোডিউস ট্রেড অ‍্যান্ড কমার্স (প্রমোশন অ‍্যান্ড ফেসিলিটেশন) অডিন‍্যান্স, ২০২০; ফার্মার্স (এমপাওয়ারমেন্ট অ‍্যান্ড প্রজেকশন) এগ্রিমেন্ট অন ‌প্রাইস অ‍্যাসুরেন্স অ‍্যান্ড ফার্ম সার্ভিস অর্ডিন্যান্স, ২০২০‌ পেশ করেন।

রাজ‍্যসভায় বিল পেশের ‌পরই বিরোধীরা বিলের বিরোধিতা শুরু করেন। কংগ্রেসের তরফ থেকে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এই বিল 'কৃষকদের জন্য ডেথ ওয়ারেন্ট', এই বিলে কোনোভাবেই স্বাক্ষর করবে না তারা। পাঞ্জাবের কংগ্রেস সাংসদ প্রতাপ সিং বাজওয়া বলেছেন, "কৃষকদের এই ডেথ ওয়ারেন্টে আমরা স্বাক্ষর করবো না। গোটা দেশ‌ মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করছে, প্রতিবেশী দেশ প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করে এগিয়ে আসছে, সেগুলো নিয়ে না ভেবে এখন এই বিল আনার দরকার কী ছিল? এই বিল নিয়ে কোনো জোট শরিকদের সাথে আলোচনা করেছে কী সরকার? প্রথমে গুজরাটে এই বিল লাগু করা হোক, যদি সফল‌ হয় তাহলে বাকি রাজ‍্যও করবে।"

সিপিআইএম সাংসদ কে কে রাগেশ বলেন, কৃষকরা যাতে কর্পোরেটদের করুণায় বাঁচে তার ব‍্যবস্থা করছে এই সরকার। এই বিল কৃষকদের নয়, কর্পোরেটদের স্বাধীনতা।

বিজেপির কতজন সাংসদ এই দুটি অর্ডিন্যান্স সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা পেয়েছেন জানতে চেয়েছেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেকে ও'ব্রায়েন। আরজেডি, সমাজবাদী পার্টি, ওয়াইএসআর কংগ্রেস,‌ ডিএমকেও এই বিলের বিরোধিতা করেছে রাজ‍্যসভায়।

সিপিআইএম সাংসদ  কে রাগেশ, টিএমসির ডেরেক ও'ব্রায়েন এবং ডিএমকে-র টি শিভা এই দুটি অর্ডিন্যান্স রাজ্যসভার সিলেক্ট কমিটিতে প্রেরণের জন্য একটি সংশোধনী উত্থাপন করেছেন।


পিপলস রিপোর্টার এর সব খবর এখন Telegram-এও।
সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে - t.me/peoplesreporter 
সব খবর পেয়ে যান হাতের মুঠোয়, এক মুহূর্তে
গুজবে নয়, খবরে থাকুন পিপলস রিপোর্টারের সঙ্গে থাকুন


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন