গত তিন বছরে কঠোর Unlawful Activities (Prevention) Act বা UAPA-এর অধীনে তিন হাজারেরও বেশি মামলা দয়ের‌ করা হয়েছে। কিন্তু এর মধ্যে মাত্র ৮২১টি মামলায় ১৮০ দিনের বিধিবদ্ধ সময়ের মধ্যে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। সিপিআই সাংসদ বিনয় বিশ্বমের করা প্রশ্নের জবাবে একথা জানিয়েছে সরকার।

সিপিআই সাংসদের প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি লোকসভায় জানিয়েছেন, ন‍্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী ২০১৬ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে UAPA-এর অধীনে ৩,০০৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই সমস্ত মামলায় মোট ৩,৯৭৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে ২০১৬ সালে ৯৯৯ জন, ২০১৭ সালে ১,৫৫৪ জন ও ২০১৮ সালে ১,৪২১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এই তিন বছরে মাত্র ৮২১টি মামলায় ১৮০ দিনের চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। ২০১৬ সালে ২৩২টি, ২০১৭ সালে ২৭২টি এবং ২০১৮ সালে ৩১৭টি মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। তবে এক থেকে দু'বছরের মধ্যে ২০১৭ সালে ৯২টি এবং ২০১৮ সালে ৫২টি মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। দু'বছরেরও বেশি সময় পরে ২০১৭ সালে ৩১টি ও ২০১৮ সালে ১০টি মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে।

ক্রিমিনাল কেস প্রসিডিওর অনুযায়ী ৬০ দিনের মধ্যে যে কোনো মামলায় চার্জশিট দাখিল করতে হয়। ফৌজদারি বিশ্বাস লঙ্ঘনের ক্ষেত্রে অর্থাৎ ৪০৯ নম্বর ধারার ক্ষেত্রে ৯০ দিনের মধ্যে চার্জশিট দাখিল করতে হয় এবং UAPA-এর ক্ষেত্রে তা ১৮০ দিন। নির্দিষ্ট দিনের মধ্যে চার্জশিট দাখিল করতে না পারলে অভিযুক্ত ব‍্যক্তির জামিন পাওয়ার অধিকার রয়েছে। এক্ষেত্রে যাদের এখনও চার্জশিট ফাইল করতে পারেনি পুলিশ তাদের জামিন মঞ্জুর হয়েছে কিনা সে‌ প্রশ্নের জবাব দেননি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি দিল্লি দাঙ্গার ঘটনায় উমর খালিদ, দেবাঙ্গনা কালিতা, খালিদ সাইফি সহ অন্তত ১৫ জন ছাত্র কর্মীকে UAPA-এর অধীনে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জেএনইউর প্রাক্তন ছাত্র উমর খালিদকে এই সপ্তাহের শুরুতে দশ দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়েছে এবং অন্যরা গত এপ্রিল-মে থেকে জেলে রয়েছেন। এদের কারো বিরুদ্ধে এখনও চার্জশিট ফাইল করতে পারেনি দিল্লি পুলিশ।‌ ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে এই আইনের অধীনে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সমাজকর্মী সুধা ভরদ্বাজ, রোনা উইলসন, সোমা সেন সহ একাধিক বিশিষ্ট ব‍্যক্তিত্বকে। এঁরা এখনও জেলে রয়েছেন। এঁদের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দেওয়ার ছ'মাস পরেও এই মামলার কোনো অগ্রগতি হয়নি।


পিপলস রিপোর্টার এর সব খবর এখন Telegram-এও।
সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে - t.me/peoplesreporter 
সব খবর পেয়ে যান হাতের মুঠোয়, এক মুহূর্তে
গুজবে নয়, খবরে থাকুন পিপলস রিপোর্টারের সঙ্গে থাকুন

 


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন