কেন্দ্রের নতুন কৃষি অর্ডিন্যান্সের বিরোধিতায় এবার ভারতীয় জনতা পার্টির জোটসঙ্গী শিরোমণি আকালি দল। পাঞ্জাবে কৃষক সম্প্রদায়ের মন পেতে সরকারের বিরুদ্ধে গিয়ে তিনটি কৃষি অধ্যাদেশের বিরোধিতা করছে আকালি দল।

 দলের সভাপতি তথা পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সুখবীর সিং বাদল জানিয়েছেন এই অর্ডিন্যান্স নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে এনডিএ সরকার দলের সাথে কোনো আলোচনা করেনি।

এমনকি এই বিলের বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার জন্য দলীয় সাংসদের হুইপ জারি করেছে আকালি দল। এই বিলকে "কৃষক-বিরোধী" আখ‍্যা দিয়ে অবিলম্বে এই বিল প্রত্যাহারের দাবি তুলেছে দলটি। শুধু তাই নয়, পাঞ্জাবের কোনো সাংসদ যদি সংসদে এই বিল সমর্থন করেন তাহলে তাঁকে গ্রামে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে আকালি দলের পক্ষ থেকে।

 এই সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেওয়ার দাবিতে পাঞ্জাব ও হরিয়ানার কৃষকরা লাগাতার আন্দোলন করছে। ইতিমধ্যেই ভাথিন্ডা-অমৃতসর জাতীয় সড়ক, রোপারে চন্ডীগড়-অমৃতসর সড়ক সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সড়ক অবরোধ করেছে বিভিন্ন কৃষক সংগঠনের সদস্যরা।

অপরদিকে ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের সদস্যরা মঙ্গলবার মিছিল করে কেন্দ্রীয় খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রী তথা শিরোমণি আকালি দলের সদস্য হরসিমরত কৌর বাদলের বাসভবন ঘেরাও করে। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হরিন্দর সিং লাখোয়াল জানিয়েছেন, "কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের বহুজাতিক সংস্থাগুলির দাস হতে বাধ্য করছে।"

কংগ্রেস শাসিত পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক‍্যাপ্টেন ‌অমরিন্দর সিংও এই অর্ডিন্যান্সের বিরোধিতা করেছেন।

যদিও পাঞ্জাব বিজেপির সভাপতি অশ্বিনী কুমার জানিয়েছেন কৃষকদের সুবিধা দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিজেপি কৃষকদের অর্থনৈতিক স্বার্থ রক্ষায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।"


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন