নীরব মোদি, মেহুল চোকসি, বিজয় মালিয়ারাই নয়, ব্যাংক প্রতারণা মামলায় গত ৪ বছরে দেশ থেকে পালিয়ে গা ঢাকা দিয়ে আছে ৩৮ জন। ২০১৫ সাল থেকে এই মামলাগুলোর তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। সোমবার সংসদে বাদল অধিবেশনের প্রথম দিন কেন্দ্রের তরফে এই তথ্য দেওয়া হয়েছে।

সাংসদ ডিন কুরিয়াকোসের এক প্রশ্নের উত্তরে অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর জানান, ১.১.২০১৬ থেকে ৩১.১.২০১৯ পর্যন্ত এরকম ৩৮ টি ব্যাংক জালিয়াতির মামলার তদন্ত চলছে। ইতিমধ্যে ইন্টারপোলে গিয়ে ২০ জনের বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিস দিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট এবং ১৪ জনকে প্রত্যর্পণের আবেদন করা হয়েছে।

আর্থিক জালিয়াতি আইন, ২০১৮ অনুসারে ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। যদিও সরকার এইসব জালিয়াতদের বিরুদ্ধে কোনও মামলা দায়ের করেনি। ২০১৯ সালের ৪ জানুয়ারি কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছ, ইডির রেকর্ড অনুসারে ২৭ জন ব্যাংক জালিয়াতের বিরুদ্ধে গত ৫ বছরে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় অর্থ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর ছাড়াও শিবপ্রসাদ শুক্লা সংসদে জানিয়েছেন, ব্যাংক জালিয়াতি মামলায় গত ৫ বছর ধরে ও চলতি বছরেও দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়া ইডি ২৭ জন জালিয়াতের বিরুদ্ধে তদন্ত করছে। এই সংখ্যাটা এবার বেড়ে ৩৮ হয়েছে। এদের মধ্যে পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকে ১০ কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগে সানি কালরা ও ৪০ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে বিনয় মিত্তলকে দেশে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। বাকিরা এখনও পলাতকই রয়েছে।


পিপলস রিপোর্টার এর সব খবর এখন Telegram-এও।
সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে - t.me/peoplesreporter 
সব খবর পেয়ে যান হাতের মুঠোয়, এক মুহূর্তে
গুজবে নয়, খবরে থাকুন পিপলস রিপোর্টারের সঙ্গে থাকুন


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন