একদিনে সর্বাধিক সংক্রমণের ঘটনা কর্ণাটকে। শনিবার কর্ণাটকের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রকাশিত তথ্য অনুসারে রাজ্যে একদিনে সংক্রমণ ঘটেছে ৫,০৭২ জনের। এদিনই রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৭২ জনের। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা ৯০,৯৪২ এবং এখনও পর্যন্ত ১,৭৯৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার রাজ্যে ২,৪০৩ জনকে সুস্থ হয়ে ওঠার পর হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এদিনই কর্ণাটক প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে বেঙ্গালুরুর ৩,৩৩৮ জন করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির কোনো হদিশ পাওয়া যাচ্ছেনা। রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে জানা গেছে চেষ্টা করেও এই সংক্রমিতদের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছেনা। আমরা আমাদের সেরাটা দিয়ে এঁদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চালাচ্ছি। এঁদের মধ্যে স্যাম্পেল টেস্টের সময় কেউ কেউ ভুয়ো মোবাইল নাম্বার দিয়েছেন এবং ভুয়ো ঠিকানা দিয়েছেন। ফলে তাঁদের চিহ্নিত করা যাচ্ছেনা।  

উল্লেখযোগ্য ভাবে এদিন যে ৫,০৭২ জনের সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে তার মধ্যে ২,০৩৬ জনই বেঙ্গালুরুর শহরাঞ্চলের। গত ২৩ জুলাই রাজ্যে সংক্রমিত হয়েছিলেন ৫,০৩০ জন।

কর্ণাটকে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যাও অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় অনেকটাই বেশি। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে অ্যাক্টিভ কেস ৫৫,৩৮৮। এর মধ্যে ৫৪,৭৭৭ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। গুরুতর অসুস্থ ৬১১ জন ভর্তি আছেন বিভিন্ন হাসপাতালের আইসিইউতে।

বেঙ্গালুরু ছাড়াও বেলাগাভীতে ৩৪১ জন, বেল্লারিতে ২২২ জন, দক্ষিণ কন্নড়ে ২১৮ জন, মহীশূরে ১৮৭ জন, কালাবুরগিতে এবং ধারয়াদে ১৮৩ জন, উদুপিতে ১৮২ জন, বিজয়পুরাতে ১৭৫ জন, উত্তর কন্নড়ে ১৫৫ জন, বেঙ্গালুরু গ্রামীণে ১৫৪ জন, হাসানে ১৫১ জন এবং চিক্কাবল্লাপুরাতে ১০১ জনের সংক্রমিত হবার খবর পাওয়া গেছে।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন