সমস্ত সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে। এবার থেকে দেশের সর্বত্র পাওয়া যাবে 'কোরোনিল'। বুধবার একথা ঘোষণা করেছেন রামদেব। পতঞ্জলির তৈরি করা আয়ুর্বেদিক কোভিড ওষুধ আয়ুষ মন্ত্রক দ্বারা "কোভিড-১৯ ম‍্যানেজমেন্ট ড্রাগ" হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে জানিয়েছেন তিনি।

হরিদ্বারে এক সাংবাদিক সম্মেলনে রামদেব জানান, "আয়ুষ মন্ত্রকের সমস্ত সমস‍্যার সমাধান হয়ে গেছে। আমাদের আয়ুর্বেদিক ওষুধকে কোভিড-১৯ ম‍্যানেজমেন্ট ড্রাগ হিসেবে চিহ্নিত করেছে ওরা। এটা প্রমাণ করে যে পতঞ্জলি কোনো ভুল করেনি বরং সমস্ত রকম আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করেছে। কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগীদের ওপর করোনিল, স্বসারির ক্লিনিকাল কন্ট্রোল ট্রায়াল পরিচালনার জন্য যথাযথ আইনী পদ্ধতি অনুসরণ করেছে পতঞ্জলি। তুলসী, অশ্বগন্ধার মতো আয়ুর্বেদিক ওষুধ দিয়ে তৈরি কোভিড-১৯ ইমিউনিটি বুস্টার করোনভাইরাস রোগীদের চিকিৎসায় কার্যকর হয়েছে। খুব শীঘ্রই দেশের সর্বত্র এই ইমিউনিটি বুস্টার পাওয়া যাবে। বিভ্রান্তির কারণে যে যে রাজ‍্য করোনিল বিক্রির বিরোধিতা করেছিল,‌ সেই রাজ‍্যগুলোর সাথেও যোগাযোগ করছি আমরা।"

লাইসেন্স পাওয়ার প্রক্রিয়া, ক্লিনিকাল ট্রায়াল, ট্রায়ালের আগে ও পরে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেওয়া, প্রত‍্যেকটা কাজই নিয়ম অনুসারে করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রামদেব।‌ তাঁর অভিযোগ, কোভিড-১৯ এর জন্য ইমিউনিটি বুস্টিং আয়ুর্বেদিক ওষুধ তৈরির বিষয়ে তাদের আন্তরিক প্রচেষ্টাকে নষ্ট করার জন্য অযৌক্তিক বিভ্রান্তি ও সন্দেহ সৃষ্টি করা হয়েছিল। ড্রাগ মাফিয়া, এমএনসি ও অ‍্যান্টি-ন‍্যাশানালরা তাঁকে জেলে পাঠাতে চায় বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ২৩ জুন এক সাংবাদিক বৈঠকে "করোনিল" এবং "স্বসারি" নামের দুটি কোভিড ওষুধ বাজারে আনার কথা ঘোষণা করেছিলেন রামদেব। পতঞ্জলি আয়ুর্বেদের তৈরি এই ওষুধে করোনা আক্রান্ত রোগী সাতদিনের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বলে দাবি করেন তিনি। কিছু পরেই প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে এই ওষুধের প্রচার বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় আয়ুষ মন্ত্রক। মন্ত্রকের অভিযোগ, এই ওষুধ‌ সম্পর্কে কোনো তথ‍্য তাদের কাছে নেই।

পতঞ্জলি আয়ুর্বেদের বিরুদ্ধে আরো গুরুতর অভিযোগ এষে উত্তরাখণ্ডের এক প্রশাসনিক অফিসার বলেন, নতুন ওষুধের লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার সময় সেখানে কোথাও উল্লেখ করা ছিল না যে এটি কোভিড-১৯ এর ওষুধ। মহারাষ্ট্র এবং রাজস্থানে এই ওষুধ বিক্রির ওপর সরকারি নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। রাজস্থানে রামদেবের বিরুদ্ধে এফআইআরও দায়ের করা হয়েছে। বিতর্কের মুখে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে পতঞ্জলির পক্ষ থেকে জানানো হয়, করোনা ভাইরাসের ওষুধ তৈরি করেছে, এরকম কোনো দাবি কখনো করেনি পতঞ্জলি।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন