দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে সম্প্রসারিত হতে চলেছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। সূত্র অনুসারে আগামীকাল সকাল ১১টায় মন্ত্রীসভার সম্প্রসারণের কথা ঘোষণা করা হবে। মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় এখনও ২৮ জন মন্ত্রীর জায়গা থাকলেও এতদিন পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান ছাড়া বাকী পাঁচজন মন্ত্রী দিয়ে মন্ত্রীসভা চলছিলো।

এর আগে কমল নাথের নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকারের পতনের পর প্রায় ১ মাস একক মন্ত্রীসভা চালিয়ে মঙ্গলবার ২১ এপ্রিল নিজের মন্ত্রীসভায় পাঁচজন মন্ত্রী সংযুক্ত করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী চৌহান। যাঁদের মধ্যে কংগ্রেসের ২ বিদ্রোহী বিধায়ক সহ পাঁচ মন্ত্রীকে রাজ্যপাল লালজী ট্যান্ডন রাজভবনে শপথবাক্য পাঠ করান। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ শিং চৌহান। উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী উমা ভারতী।

ওইদিন যারা মন্ত্রী হয়েছিলেন তাঁদের মধ্যে ছিলেন বিদ্রোহী ও দলত্যাগী কংগ্রেস বিধায়ক তুলসী শিলাবত এবং গোবিন্দ সিং রাজপুত। এছাড়াও মন্ত্রী হন নরোত্তম মিশ্র, মীনা সিং এবং কমল প্যাটেল। এঁরা সকলেই বিজেপি বিধায়ক। রাজ্যের গোয়ালিয়র-চম্বল, বুন্দেলখন্ড, মালবা, বিন্ধ এবং মধ্য মধ্যপ্রদেশ থেকে মন্ত্রী করা হয়েছে। উল্লেখ্য, যে দুই দলত্যাগী কংগ্রেস বিধায়ক এর আগে মন্ত্রী হয়েছেন তাঁরা দুজনেই জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া ঘনিষ্ঠ। এঁরা দুজনেই কমলনাথ মন্ত্রীসভাতেও মন্ত্রী ছিলেন।

গত মার্চ মাসে ২২ বিধায়কের বিদ্রোহে মধ্যপ্রদেশে ১৫ মাসের কমল নাথ সরকারের পতন হয়। এরপর গত ২৩ মার্চ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন বিজেপির শিবনাথ সিং চৌহান। তখন থেকেই তিনি একাই মন্ত্রীসভা চালাচ্ছিলেন। পাঁচ মন্ত্রী সংযুক্ত করার পর তিনি আরও ২৮ জনকে মন্ত্রীসভায় স্থান দিতে পারবেন।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন