সপ্তাহের কেনাবেচার প্রথম দিনেই ধাক্কা লাগলো সেনসেক্সে। একইভাবে ধাক্কা লেগেছে নিফটিতেও। শুক্রবার বাজার বন্ধের সময় সেনসেক্স দাঁড়িয়ে ছিলো ৩৫,১৭১.২৭ পয়েন্টে। সোমবার সেনসেক্স খোলে কিছুটা নেমে ৩৪,৯২৬.৯৫ পয়েন্টে।

দুপুর ১টা পর্যন্ত সেনসেক্স ডে হাই করেছে ৩৪,৯৫৮.৯০ পয়েন্টে। নীচের দিকে ছুঁয়ে এসেছে ৩৪,৬৬২.০৬ পয়েন্ট। যা গত শুক্রবারের বাজার বন্ধের সময়ের তুলনায় ৫০৯.২১ পয়েন্ট নীচে। এই মুহূর্তে সেনসেক্স ২৪৫.১৭ পয়েন্ট নীচে নেমে ৩৪,৯২৯.৭৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়ে আছে।

একইভাবে শুক্রবার বাজার বন্ধের সময় নিফটি দাঁড়িয়ে ছিলো ১০,৩৮৩ পয়েন্টে। এদিন বাজার খোলে কিছুটা নেমে ১০,৩১১.৯৫ পয়েন্টে। সর্বাধিক স্তর ১০,৩২৫ এবং সর্বনিম্ন ১০,২২৩.৬০। এই মুহূর্তে নিফটি ৮৯.২০ পয়েন্ট নিচে নেমে দাঁড়িয়ে আছে ১০,২৯৩.৮০ পয়েন্টে।

এদিন বাজারে দাম পড়েছে অধিকাংশ ব্যাঙ্কিং শেয়ারের। যার মধ্যে আছে এস বি আই, ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া, পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক, ক্যান ব্যাঙ্ক, ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া, ব্যাঙ্ক অফ বরোদা, ইউকো ব্যাঙ্ক প্রভৃতি শেয়ারের। নিফটি পিএসইউ ব্যাঙ্কে প্রায় ৩.৪৬% পতন হয়েছে।

অন্যদিকে পতন ঘটেছে নিফটি মেটালেও। জিন্দাল স্টিল, হিন্দুস্থান জিঙ্ক, টাটা স্টীল প্রভৃতি শেয়ারের দাম পড়েছে। এছাড়াও দাম নেমেছে কোল ইন্ডিয়ার শেয়ারের। দাম নেমেছে ইমামির শেয়ারের। দাম নেমেছে আদানি গ্রিনের শেয়ারের। বিগত চার দিনে আদানি গ্রিনের শেয়ারের দাম নেমেছে প্রায় ১৮.৫৩%।

গত শুক্রবার আমেরিকান ডলারের অনুপাতে ভারতীয় টাকার দাম ছিলো ৭৫.৬৫ টাকা। সোমবার ৫ পয়সা বেড়ে মার্কিন ডলারের অনুপাতে ভারতীয় টাকার দাম পৌঁছেছে ৭৫.৬০ টাকায়।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন