ধুঁকছে দেশের অর্থনীতি। আর এর জেরেই চাকরির বাজারে আসতে চলেছে ঘোর কালো ছায়া। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, চলতি বছরে চাকরি কমবে প্রায় ১৬ লক্ষ। অর্থাৎ ২০১৯ - ২০ অর্থবর্ষে গত অর্থবর্ষের তুলনায় মোট চাকরির সংখ্যা প্রায় ১৬ লক্ষ কম হতে পারে। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার মুখ্য উপদেষ্টা সৌম্যকান্তি ঘোষ এই রিপোর্ট প্রকাশ করেন।

দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, দেশের অর্থনৈতিক মন্দার কারণই চাকরির বাজারে এমন বেহাল অবস্থার জন্য দায়ী। প্রভিডেন্ট ফান্ডের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৮ - ১৯ অর্থবর্ষে পে রোলে চাকরি হয়েছিলো মোট ৮৯.৭ লক্ষ। এপ্রিল থেকে অক্টোবরের নতুন পে-রোল ৪৩.১ লক্ষ। প্রবণতা বলছে, আগামী মার্চ মাসে অর্থাৎ ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের শেষে এই সংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় ৭৩.৯ লক্ষ। যা গত অর্থবর্ষের তুলনায় মোট প্রায় ১৫.৮ লক্ষ কম।

স্টেট ব্যাঙ্কের দেওয়া এই পরিসংখ্যানটি তৈরি করা হয়েছে সেই সমস্ত চাকরির জন্য যেখানে বেতন ১৫০০০ টাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ। কেন্দ্র বা রাজ্য সরকার কিংবা বেসরকারি চাকরির সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই। তার কারণ সেগুলো জাতীয় পেনসেন যোজনার অন্তর্ভুক্ত। তবে জাতীয় পেনসন যোজনার তথ্য বলছে, সেখানেও ঘোর দুঃসংবাদ। ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে প্রায় ৩৯ লক্ষ চাকরি কমতে পারে বলে অনুমান করা হয়েছে।এছাড়াও চুক্তিভিত্তিক শ্রমিক ছাঁটাই করছে বিভিন্ন সংস্থা।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন