নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদ জানিয়ে চাকরি থেকে ইস্তফা দিলেন এক আইপিএস অফিসার। গতকাল রাজ‍্যসভায় এই বিল পাশ হওয়ার পরই টুইটারে এই বিলের প্রতিবাদ জানিয়ে নিজের পদত‍্যাগের কথা ঘোষণা করেন মহারাষ্ট্র ক‍্যাডারের ওই আইপিএস অফিসার। অফিসারের মতে এই বিল ভারতের ধর্মীয় বহুত্ববাদ ও সংবিধানের মূল বৈশিষ্ট্যের বিরুদ্ধে।

আব্দুর রহমান নামের ওই আইপিএস অফিসার ট‍্যুইটারে নিজের পদত্যাগপত্রের ছবি সহ লেখেন, "নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, ২০১৯ ভারতের সংবিধানের মূল বৈশিষ্ট্যের পরিপন্থী। আমি এই বিলের নিন্দা করছি। নাগরিক অবাধ‍্যতায় আমি আগামীকাল থেকে অফিসে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি এই চাকরি ছেড়ে দিচ্ছি।"

 

এর পরের একটি ট‍্যুইটে তিনি লেখেন, "এই বিলটি ভারতের ধর্মীয় বহুত্ববাদের বিরুদ্ধে। আমি সমস্ত ন‍্যায়বিচারপ্রিয় মানুষকে গণতান্ত্রিক উপায়ে এই বিলের বিরোধিতা করার অনুরোধ করছি। এটি সংবিধানের একেবারে মৌলিক বৈশিষ্ট্যের বিরুদ্ধে।"

 

মহারাষ্ট্র রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের একজন পুলিশ পরিদর্শক তথা আইজিপি পদমর্যাদার আধিকারিক এই আব্দুর রহমান, অমিত শাহের বিরুদ্ধে ইতিহাস বিকৃত করার অভিযোগও তোলেন।

প্রসঙ্গত, গতকাল ১২৫টি ভোট পেয়ে সংসদের উচ্চ কক্ষে পাশ হয় এই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। গত সোমবার মধ্যরাতে লোকসভায় পাশ হয় এই বিল। বিতর্কিত এই বিলে বলা হয়েছে, ২০১৪ সালের ৩১শে ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ, পাকিস্তান, আফগানিস্তান থেকে ধর্মীয় নিপীড়নের কারণে যে সমস্ত হিন্দু, বৌদ্ধ, জৈন, শিখ, পার্সী ও খ্রিস্টানরা এ দেশে এসেছেন তাদের ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন