আমরা দেশজুড়ে বিজেপি বিরোধী জোট গড়ে তুলতে আগ্রহী। মহারাষ্ট্রে শপথ নেবার একদিনের মাথায় শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউথের হুঙ্কারে নড়েচড়ে বসেছে রাজনৈতিক মহল।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যেয় মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনের পরেই গোয়া নিয়ে সরাসরি বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলো শিবসেনা। শুক্রবার শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউথের এই ঘোষণার পরেই সরগরম হয়েছে গোয়ার রাজনৈতিক মহল।

শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউথ জানান – বিজেপি শাসিত গোয়ায় এবার মিরাক্যল ঘটবে। তিনি আরও বলেন – মহারাষ্ট্রের মতই গোয়ায় এবার নতুন রাজনৈতিক সমীকরণ হতে চলেছে। খুব তাড়াতাড়ি গোয়ায় আপনারা চমৎকার দেখতে পাবেন। তারপরেই আমরা অন্য রাজ্যতেও নজর দেবো।

সূত্রের খবর অনুসারে গোয়া ফরোয়ার্ড পার্টির প্রধান এবং রাজ্যের প্রাক্তন উপ মুখ্যমন্ত্রী বিজয় সরদেশাই ইতিমধ্যেই সঞ্জয় রাউথের সঙ্গে দেখা করেছেন। শিবসেনা ঘনিষ্ঠ এই বিধায়ক জানিয়েছেন, কোনো ঘোষণা করে সরকার বদল হবেনা। যাই হোক, তা হবে আচমকা। মহারাষ্ট্রে যেরকম হয়েছে, গোয়াতেও ঠিক সেরকমই হবে। মহারাষ্ট্রের মহা বিকাশ আঘাদির মত গোয়াতেও সমস্ত বিরোধীদের একত্রিত করা হবে।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালের নির্বাচনে গোয়াতে একক বৃহত্তম দল ছিলো কংগ্রেস। যদিও ১৭ বিধায়ক থাকা সত্ত্বেও ১৩ বিধায়ক থাকা বিজেপি সরকার গঠন করে নেয়। যা নিয়ে তুমুল সমালোচনা হয় রাজনৈতিক মহলে।

যদিও অঙ্কের হিসেবে এই মুহূর্তে গোয়ায় সরকার বদলানো কার্যত অসম্ভব। গত জুলাই মাসে ১০ কংগ্রেস বিধায়কের বিজেপিতে যোগদানের পর বর্তমানে ৪০ আসন সংখ্যাবিশিষ্ট গোয়া বিধানসভায় বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা ২৭।   


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন