অমিত শাহ-র ছেলে জয় শাহ-র সম্পত্তি বৃদ্ধি নিয়ে ব্যাঙ্গাত্মক ট্যুইট করলো কংগ্রেস। বাদ যাননি রাহুল গান্ধীও। তিনিও এই ট্যুইট যুদ্ধে অংশ নিয়েছেন। সম্প্রতি ক্যারাভান ম্যাগাজিনে প্রকাশিত একটি রিপোর্টকে ভিত্তি করে তাঁরা এই ট্যুইট করেছেন বলে জানা গেছে।

শনিবার করা এক ট্যুইটে কংগ্রেস মুখপাত্র পবন খেরা জানান – নরেন্দ্র মোদী সরকারের সমস্ত মন্ত্রীদের করা বিতর্ক অযৌক্তিক। কিন্তু রাজা জয় শাহ-র ক্ষেত্রে একমাত্র ম্যাজিক। যার ১৫ হাজার গুণ আয় বৃদ্ধি থেকে বোঝা যায় দেশে কোনো অর্থনৈতিক বিপর্যয় নেই। যদিও তিনি কী ধরণের ব্যবসা করেন তা কেউ জানেনা।

 

ক্যারাভান ম্যাগাজিনের ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে জয় শাহ-র কোম্পানী কুসুম ফিনসারভের সম্পদ ২০১৪ সালের ৭৯.৬০ লাখ থেকে ২০১৯ সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৯.৬১ কোটি। পবন খেরা জানিয়েছেন – তিনি কী ধরণের ব্যবসা করেন – শেয়ার ট্রেডিং, অ্যাগ্রো কমোডিটি ট্রেডিং - তা তিনি প্রকাশ করেননি।

 

এই বিতর্কে কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী এক ট্যুইট বার্তায় জানান – এবার গল্পটা বোঝা যাচ্ছে।

পবন খেরা আরও জানিয়েছেন – কোনো অর্থনৈতিক বিপর্যয়ই রাজাকে ছুঁতে পারেনি। সমস্ত ভগবান তাঁকে আশীর্বাদ করেছেন। তিনি সমস্ত রকমের ঋণ পেতে পারেন। দেশে আইন আছে যে সমস্ত ব্যবসায়ীকে প্রতি বছর অক্টোবর ৩০-এর মধ্যে আয়কর দিতে হয়। কিন্তু তিনি ২০১৭ এবং ২০১৮-র আয়কর জমা দিয়েছেন ২০১৯-এর আগস্টে। যেখানে তাঁর নীট স্থাবর সম্পত্তি ২০১৫ সালের ৫১.৭৪ লাখ থেকে ২০১৯-এ হয়েছে ২৩.২৫ কোটি।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন