মহারাষ্ট্র সরকারে ক্ষমতা ভাগাভাগির দ্বন্দ্বের মাঝেই ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের কাশ্মীর সফর প্রসঙ্গে কেন্দ্র সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুললো বিজেপির জোটসঙ্গী শিবসেনা‌। ভারতের আভ‍্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশি প্রতিনিধিদের কেন কাশ্মীরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হলো তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে শিবসেনা।

নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকারের তীব্র সমালোচনা করে শিবসেনার মুখপত্র 'সামনা'-তে বলা হয়, "কাশ্মীরের বর্তমান অবস্থা খতিয়ে দেখতে ২৮ সদস্যের ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি প্রতিনিধিদল এই মুহূর্তে কাশ্মীরে রয়েছে। কাশ্মীর আমাদের দেশের আভ্যন্তরীণ বিষয়।‌ কাশ্মীরে এখন জাতীয় পতাকা ওড়ে এবং এর জন্য নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহকে নিয়ে আমরা গর্বিত। কিন্তু কাশ্মীরে যদি সবকিছু ঠিক থাকে তাহলে বাইরের প্রতিনিধিদের কেন সেখানে পাঠানো হলো? এটা কি আমাদের আভ‍্যন্তরীণ বিষয় নয়?"

মুখপত্রে আরও বলা হয়, "কাশ্মীর ইস‍্যুতে রাষ্ট্রসংঘ হস্তক্ষেপ করুক তা সরকার চায় না, অথচ বিদেশি প্রতিনিধিদের কাশ্মীরে পাঠানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে। বিদেশীদের আসা এবং কাশ্মীর ভ্রমণ আমাদের স্বাধীনতার ওপর আঘাত এবং যা গুরুতর প্রশ্ন তোলে।"

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর থেকেও এর ব‍্যাখ‍্যা চেয়েছে শিবসেনা। প্রসঙ্গত, গতকাল কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দক্ষিণপন্থী কিছু সদস্য। যদিও ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এর সাথে জড়িত নয়। এই সফর কোনো সরকারি সফর নয়। নিতান্তই ব‍্যক্তিগত সফরে গিয়েছেন ওই সদস্যরা।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন