জম্মু ও কাশ্মীরে আগামী অক্টোবর মাসে যে আন্তর্জাতিক শিল্প সম্মেলন হওয়ার কথা ছিলো, তা বাতিল করা হয়েছে বলে জানা গেছে। জম্মু ও কাশ্মীরের স্বশাসন প্রত্যাহার করে রাজ্যটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করে দেয় কেন্দ্রীয় সরকার। যার একটি হলো জম্মু ও কাশ্মীর এবং অপরটি হলো লাদাখ।

সরকার জানায় ৩৫A ধারা তুলে নেওয়ার ফলে, কাশ্মীরে জমি কিনতে পারবে বহিরাগতরা। তাই বিনিয়োগ বিপুল পরিমাণে সম্ভব হবে। তাই, সেখানে প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মেলন করা হবে বলে জানানো হয়। ১২ ই অক্টোবর থেকে ১৪ ই অক্টোবর পর্যন্ত শ্রীনগরে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো।

যদিও জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতি এখনও শান্ত হয়নি। এখনও জোরদার নিরাপত্তা রয়েছে সেখানে। এছাড়াও যোগাযোগ ব্যবস্থা বেশ কিছু জায়গায় এখনও বন্ধ রয়েছে। এছাড়াও ৫ ই আগস্ট থেকে ইন্টারনেট ও টেলিফোন পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। যার জন্য মামলা দায়ের করেছেন অনুরাধা ভাসিন। যিনি কাশ্মীর টাইমসের এডিটর এবং সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রীয় সরকারকে সাতদিনের মধ্যে এর কারণ দর্শানোর নির্দেশ জারি করেছে।

এক মাসের মধ্যে কাশ্মীরের পরিস্থিতি শান্ত হবে বলে অনুমান করেছিলেন অনেকেই। কিন্তু তা সম্ভব হয়নি।  জম্মু ও কাশ্মীরে শিল্প ও বাণিজ্য দফতরের প্রধান সচিব এন কে চৌধুরী, মনে করেছিলেন একমাসের মধ্যে পরিস্থিতির বদল হবে। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “আমি যদি এটা বিশ্বাস না করতাম, তাহলে দিন ঘোষণা করতাম না’।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন