সরকার পরিচালিত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মিড-ডে-মিলে শিক্ষার্থীদের কেবলমাত্র রুটি ও নুন দেওয়ায় উত্তরপ্রদেশের মুখ‍্য সচিবকে নোটিশ পাঠালো জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। আজ একটি বিবৃতির মাধ্যমে এই নোটিশ পাঠিয়েছে মানবাধিকার কমিশন। মুখ‍্য সচিবকে চার সপ্তাহের মধ্যে এই ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কমিশন।

গত বৃহস্পতিবার মির্জাপুরের সরকারি একটি বিদ‍্যালয়ে শিশুদের মিড-ডে-মিল পরিবেশনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে দেখা যাচ্ছে, বিদ‍্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দুই মহিলা মিলে রুটি ও নুন পরিবেশন করছে। এই ভিডিওর প্রেক্ষিতে মুখ‍্য সচিবকে নোটিশ পাঠিয়েছে কমিশন।

মানবাধিকার কমিশনের জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, "চার সপ্তাহের মধ্যে এই বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন‍্য উত্তরপ্রদেশ সরকারের মুখ‍্য সচিবকে নোটিশ পাঠাচ্ছে কমিশন। রাজ‍্যে সরকারি ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত বিদ‍্যালয়গুলিতে মিড-ডে-মিল প্রকল্পের বর্তমান অবস্থা জানতে চায় কমিশন। এই প্রকল্পে শিশুদের দেওয়া খাবারের গুণগত মান সম্পর্কে তথ‍্য জানতে চায় কমিশন।"

আরও পড়ুন - 

 গত বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমে দেখানো ভিডিও ফুটেজে খাবারের মান দেখে এই ঘটনাকে "লজ্জাজনক" বলে মন্তব্য করেছে কমিশন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই প্রকল্পের অধীনে শিশুদের পুষ্টিকর খাবার দেওয়া হচ্ছে কিনা তা দেখার দায়িত্ব সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের।

২০০১ সালে সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া নির্দেশ উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, "২০০১ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুসারে, সরকারি ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত বিদ‍্যালয়গুলিতে ২০০ দিনের জন্য প্রতিটি শিশুকে তাদের প্রাথমিক চাহিদা অনুযায়ী ৩০০ কিলো ক‍্যালোরি ও ৮-১২ গ্রাম প্রোটিন দিতেই হবে।"


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন