গ্রেফতার করা হলো পি চিদম্বরমকে। প্রায় ২৪ ঘন্টা বেপাত্তা থাকার পর অবশেষে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে ধরা পড়লেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী ও বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম। আজ সন্ধ্যায় দিল্লিতে কংগ্রেসের হেড কোয়ার্টারে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে তাঁর পিছু নেই INX মিডিয়া মামলায় তদন্তকারী সংস্থা CBI ও ED। চিদাম্বরম তাঁর বাড়িতে প্রবেশ করার পর পাঁচিল টপকে ভেতরে ঢুকে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে তদন্তকারী অফিসাররা।

তদন্তকারী সংস্থাগুলোকে দেওয়া এক বার্তাতে প্রাক্তন মন্ত্রী আগামী শুক্রবার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছিলেন। গতকালই INX মিডিয়ায় দুর্নীতি ও আর্থিক তছরুপের মামলায় অভিযুক্ত পি চিদম্বরমের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট। আজ হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করলে মামলার শুনানি পিছিয়ে যায় শুক্রবার পর্যন্ত। যদিও আজ সকালেই চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি করে ED।

আজ সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ৭৩ বছরের এই রাজনৈতিক নেতা বলেন, "আমি বিস্ময়ে হতবুদ্ধি এটা শুনে যে আমার বিরুদ্ধে বিচার থেকে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে... আমি নিজেই বিচার চাইছি। আমি বিবেক নিয়ে এই লড়াই চালিয়ে যাব। মাথা উঁচু করে লড়বো।" এরপর গতকাল থেকে বেপাত্তা থাকার ব‍্যাখ‍্যা করে তিনি বলেন, "সারারাত আমি আমার আইনজীবীর সাথে কাজ করেছি এবং আজ সকালেও তাই করেছি।"

কংগ্রেস এই সমস্ত ঘটনার মধ্যে প্রতিহিংসাপরায়ণতার ছবি দেখছে। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ও সংবাদমাধ্যমকে ব‍্যবহার করে পি চিদম্বরমকে বদনাম করার চেষ্টা করছে মোদী সরকার বলে অভিযোগ করেন রাহুল গান্ধী। পি চিদাম্বরমের ছেলে কার্তি চিদাম্বরমও একই অভিযোগ করে প্রশ্ন করেন, "২০১৭ সাল থেকে তদন্তে নেমে এতোদিন কেন চার্জশীট দেওয়া হয়নি? দেশবাসীর দৃষ্টি ঘোরাতে কেন্দ্র সরকার ইচ্ছাকৃত এই কাজ করছে।"


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন