পথ নির্দেশিকা ছাড়াই পাইলট বিমান নিয়ে আকাশে উড়ে গেলেন। এর ফল যা হবার তাই হল। চূড়ান্ত গাফিলতি এবং বিপদজনক অবস্থায় পড়লেন বিমানের ১৪৬ জন যাত্রী। মাঝ আকাশে উঠে পাইলটের খেয়াল হল রুট ম্যাপ (নেভিগেশন চার্ট) সঙ্গে আনেননি তিনি। সঙ্গে সঙ্গে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল রুমে ফোন করেন পাইলট। তড়িঘড়ি অবতরণও করে বিমানটি।

দিল্লি থেকে ব্যাংককের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল গো এয়ারের বিমান। সঠিক সময় ওড়ে বিমানটি। কিন্তু বিমান আকাশে কোন পথে যাবে তার রুট ম্যাপ ছাড়াই বিমানটি ছেড়ে দেন পাইলট। বিমানে ছিলেন ১৪৬ জন যাত্রী। অ্যারোনটিকেল চার্ট বা নেভিগেশন চার্ট বিমানের যাত্রাপথের সঠিক পথ বাতলে দেয়। যা মূলত বিমানের রোড ম্যাপ। কোন পথ দিয়ে গিয়ে গন্তব্যে পৌঁছবে বা কোন পথে উড়লে বিপদের সম্ভাবনা আছে সবকিছুই স্পষ্ট করা থাকে এই রুট ম্যাপে। সুতরাং বিমান চালানোয় এই চার্ট যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তা বলাইবাহুল্য।

বিমান সংস্থার মুখপাত্র জানিয়েছেন, যাত্রীদের অন্য একটি বিমানে ব্যাংকক নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটিতে যান্ত্রিক গোলযোগ থাকায় বিমান বদল করা হয়। সেই সময় নেভিগেশন চার্ট নতুন বিমানে রাখা হয়নি বলেই এই বিপত্তি ঘটেছে।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন