সুপ্রিম কোর্টে বড়সড় ধাক্কা খেলেন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। গ্রেফতার না করার ‘রক্ষাকবচ’ সরিয়ে নিল দেশের শীর্ষ আদালত৷ এবার যেকোনো সময় রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করতে পারবে সিবিআই৷ তবে সুপ্রিম কোর্ট এও জানিয়েছে আগামী সাতদিনের মধ্যে আগাম জামিনের আবেদন করতে পারবেন আইপিএস রাজীব কুমার৷

মূলত সারদা সহ বিভিন্ন টিটফান্ড সংস্থা সম্পর্কিত তদন্তে কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল অসহযোগিতা করছেন বলে আদালতে অভিযোগ করে সিবিআই৷ তদন্তের স্বার্থে তাঁকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করার জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা।

সারদা সহ অন্যান্য ভুয়ো অর্থলগ্নি সংস্থার দুর্নীতির তদন্তের উদ্দেশ্যে ২০১৩ সালে সিট গঠন করে পশ্চিমবঙ্গ সরকার৷ এই সিটের দায়িত্বে ছিলেন তৎকালীন বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটের প্রধান রাজীব কুমার। ২০১৪-য় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ভুয়ো অর্থলগ্নি সমস্থার তদন্তভার যায় সিবিআইয়ের হাতে। সিবিআইয়ের অভিযোগ, বারংবার চিঠি পেয়েও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাজিরা দেননি রাজীব৷ এরপর তার বাসভবনে হানা দেয় সিবিআই। তা নিয়েও রাজনৈতিক চাপানউতোর হয়েছে বিস্তর।  এরপর আদালতের নির্দেশে শিলং এ গিয়ে সিবিআইয়ের মুখোমুখি হন রাজীব কুমার। সেখানেও বয়ান রেকর্ডের সময় অসহযোগিতা করেন রাজীব কুমার।

উল্লেখ্য, বুধবারই নির্বাচন কমিশন রাজ্য থেকে সরিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে পাঠিয়ে দিয়েছে রাজীব কুমারকে। কমিশনের নির্দেশের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবারই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে গিয়ে রিপোর্ট করেছেন রাজীব।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন