এবার সরাসরি রবার্ট বঢরাকে আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ক্ষমতায় এলে পাঁচ বছরের জন্য তাঁকে জেলে পাঠাবেন বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন নরেন্দ্র মোদি।

ভোট যত এগোচ্ছে ততই লাগামহীন হয়ে পড়ছেন রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীরা। রাজীব গান্ধিকে নিয়ে মন্তব্যের পর এবার রবার্ট বঢরা এলেন মোদির নিশানায়। বুধবার হরিয়ানার ফতেহাবাদে প্রচারে গিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদি। সেখানেই প্রিয়াঙ্কা গান্ধির স্বামী রবার্ট বঢরাকে নিয়ে তিনি কার্যত হুমকির সুরে বলেন, ‘যে কৃষকদের টাকা লুঠ করেছেন, তাঁকে আদালতে টেনে এনেছে চৌকিদার। ইডির দরজায় ঘুরতে হচ্ছে তাঁকে। জামিন পাওয়ার জন্য তিনি এখন আদালতের চক্কর কাটছেন।’

নাম না করলেও, মোদির নিশানায় যে রবার্ট বঢরা তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি কারও। মোদি বলেন, ‘তিনি এক সময় নিজেকে শাহেনশা ভাবতেন। এখন তিনি নার্ভাস। জেলের দরজায় এনেছি। আশীর্বাদ করুন, পাঁচ বছর তাঁকে হাজতবাস করাবো।’

বিজেপির তরফে রবার্ট বঢরাকে বার বার কাঠগড়ায় তোলা হলেও, খোদ প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে কিছু বলেননি। এদিন নাম না করে বললেও কার্যত চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেছেন মোদি। হরিয়ানার গুরগাঁওতেই জমি দুর্নীতিতে অভিযুক্ত বঢরা। অভিযোগ, হরিয়ানায় কংগ্রেস ক্ষমতায় থাকাকালীন তিনি দুর্নীতি করেছিলেন। এরপরই মনোহরলাল খাট্টারের সরকার বঢরার বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল।

(ফাইল ছবি)


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন