স্বামীর বাড়ি থেকে পালিয়ে ভালোবাসার মানুষকে বিয়ে করেছিলেন বছর সাতাশের তরুণী। এর পরিণাম যে কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে তা হয়তো কল্পনাও করতে পারেননি তিনি। কাঠফাটা রোদে খালি পায়ে মাঠের ওপর দিয়ে নিজের স্বামীকে কাঁধে বয়ে নিয়ে যেতে হলো তাঁকে। মধ‍্যপ্রদেশের ঝাবুয়া জেলার ঘটনা। ইতিমধ্যেই দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এই ঘটনার জন‍্য।

শনিবার সংবাদ সংস্থা ANI এই মর্মান্তিক ভিডিও প্রকাশ করে। ঝড়ের গতিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও ভাইরাল হয়। ভিডিওটিতে দেখা গেছে এক তরুণী কাঁধে তাঁরই বয়সী এক তরুণকে নিয়ে খোলা মাঠের ওপর দিয়ে খালি পায়ে হেঁটে যাচ্ছে। তরুণীর পেছনে হাতে লাঠি নিয়ে পৈশাচিক উল্লাস করতে করতে আরো বহু লোক হাঁটছে। তরুণ থেকে প্রৌঢ় সব বয়সের পুরুষ আছে ওই দলে। তরুণী সামান‍্য থেমে গেলেই পেছন থেকে আসছে হুমকি।

স্থানীয় পুলিশ মারফত জানা গেছে, ঝাবুয়া জেলার দেবীগড় গ্রামে তরুণীটির স্বামীর বাড়ি। কয়েকদিন আগে এখান থেকেই নিজের প্রেমিকের কাছে গুজরাট পালিয়ে যান ওই তরুণী। তাঁর স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন দু'দিন আগে তাঁকে আবার দেবীগড়ে ফিরিয়ে আনে। এরপরই গ্রামের মাতব্বররা সালিশি সভায় এই শাস্তির বিধান দেয় ওই তরুণীকে।

ঝাবুয়া জেলার এসপি বিনীত জৈন জানিয়েছেন, "এটা সত‍্যিই অমানবিক। ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।"


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন