প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর নকল সই দেখিয়ে কেন্দ্র সরকারের উচ্চতর পদে নিয়োগ করার মিথ‍্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২.১৭ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক মুরলীধর রাওয়ের বিরুদ্ধে। প্রতারিত ব‍্যক্তির স্ত্রীর অভিযোগ অনুসারে প্রতারণা, জালিয়াতি, হুমকি সহ একাধিক ধারায় মুরলীধর রাও সহ মোট আটজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

মহিলার দায়ের করা অভিযোগ অনুযায়ী, ২০১৫ সালের নভেম্বরে ঈশ্বর রেড্ডি নামের এক ব‍্যক্তি যিনি নিজেকে এক বিশিষ্ট বিজেপি নেতার সহকারী বলে পরিচয় দিয়েছিলেন, তাঁর ও তাঁর স্বামীর সাথে দেখা করেছিলেন। ঈশ্বর রেড্ডি তাঁদের বলেছিলেন তিনি কৃষ্ণ কিশোর নামের এক ব‍্যক্তিকে চেনেন। কেন্দ্র সরকারের যেকোনো দপ্তরে সমস্ত পদে নিয়োগের ক্ষমতা আছে তাঁর। এই কৃষ্ণ কিশোর বিজেপি নেতা মুরলীধর রাওয়ের ছায়াসঙ্গী।

অভিযোগে বলা হয়েছে ঈশ্বর রেড্ডির এই প্রস্তাবে প্রথমে রাজি হয়নি ওই দম্পতি। এর কিছুদিন পর মুরলীধর রাও সহ মোট আটজনকে নিয়ে ফের ওই দম্পতির সাথে সাক্ষাৎ করেন ঈশ্বর রেড্ডি। Pharma Exill-এর সদস্য হিসেবে নিয়োগ করার মিথ‍্যে প্রতিশ্রুতি দেন। এতেও রাজি হননি স্বামী-স্ত্রী। এরপর মুরলীধরের সম্মতিতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের সই করা Pharma exill-এর চেয়ারপার্সন পদে মহিলার স্বামীর নাম লেখা একটি নিয়োগ পত্র দেখান ঈশ্বর রেড্ডি। এই পদে নিয়োগের জন্য বলপূর্বক তাঁদের থেকে ২.১৭ কোটি টাকা নিয়ে নেন।

এর কয়েকদিন পর অভিযোগকারী ও তাঁর স্বামী ঈশ্বর রেড্ডি ও বাকি নেতাদের কাছে নিয়োগপত্র নিয়ে কথা বললে তাঁরা বিষয়টি অস্বীকার করে। টাকা ফেরত চাইলে তা দিতেও অস্বীকার করেন ঈশ্বর রেড্ডি। এমনকি অভিযোগে আরও জানানো হয়েছে ওই মহিলা ও তাঁর স্বামীকে মুরলীধর রাও হুমকিও দিয়েছেন।

যদিও মুরলীধর এই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তেলেঙ্গানার বিজেপি মুখপাত্র কৃষ্ণ সাগর রাও একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, "কিছু নিন্দুক আমাদের দলকে কলঙ্কিত করার জন্য মিথ‍্যে FIR দায়ের করেছেন মুরলীধর রাওয়ের বিরুদ্ধে।"

 


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন