২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে জয়লাভ করার জন্য আন্না হাজারেকে ব‍্যবহার করেছিল বিজেপি। বিজেপির বিরুদ্ধে এই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনলেন স্বয়ং আন্না হাজারে। সোমবার নিজের গ্রাম রেলেগাঁও-সিদ্ধি থেকে সমাজকর্মী আন্না হাজারে বলেন, "হ‍্যাঁ। ২০১৪ সালে বিজেপি আমাকে ব‍্যবহার করেছিল। প্রত‍্যেকে জানে লোকপাল বিল নিয়ে আমার আন্দোলনের কথা। যা বিজেপি, এমনকি আম আদমি পার্টি (AAP)-কে ক্ষমতায় এনেছে। এখন আমার প্রতি এঁদের কোনো শ্রদ্ধা নেই।"

তাঁর মতে, নরেন্দ্র মোদী শাসিত কেন্দ্র সরকার "দেশের জনগণকে ভুল পথে চালিত করছে এবং দেশে স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করছে।" তিনি বলেন, "আর কতদিন এই মিথ‍্যে কথার বুলি চালিয়ে যাবে সরকার? এই সরকার দেশের জনগণকে হতাশ করেছে।"

কেন্দ্র সরকারের পাশাপাশি বিজেপি শাসিত মহারাষ্ট্র সরকারেরও তীব্র সমালোচনা করেছেন ৮১ বছরের এই সমাজকর্মী। গত চার বছর ধরে মহারাষ্ট্রের বিজেপি সরকার জনগনকে "মিথ্যে" বলছে বলে দাবি করেন তিনি। তিনি বলেন, "রাজ‍্য সরকার দাবি করে যে আমার দাবির ৯০ শতাংশ তাঁরা স্বীকার করেছে। সরকারের এই দাবি মিথ্যে।"

 

আজ তিনি অনুতাপ করে বলেন, ২০১১ ও ২০১৪ সালে তাঁর আন্দোলনে যাঁরা উপকৃত হয়েছিলেন, আজ তাঁরাই এই দাবিগুলির থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। এমনকি গত পাঁচ বছরে দাবিগুলি বাস্তবায়নের কোনো প্রচেষ্টা হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।

লোকপাল আন্দোলনের দাবিগুলিকে পূরণের দাবিতে যে অনির্দিষ্টকালীন অনশন করছেন আন্না হাজারে, আজ তা ষষ্ঠ দিনে পড়ল। একদিন আগেই তিনি সরকারকে হুমকি দিয়ে বলেছিলেন, তাঁর দাবিগুলি পূরণ না হলে, দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান 'পদ্মভূষণ' ফিরিয়ে দেবেন তিনি। তিনি বলেন, "কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারকে দৃঢ় সংকল্প নিতে হবে এবং আমায় লিখিত ভাবে জানাতে হবে। কারণ মৌখিক আশ্বাসনে আমি আর বিশ্বাস করি না।"


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন