ফের রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের রোষের মুখে বিখ্যাত দুই বলিউড অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ ও আমির খান। এই দুজন অভিনেতাকে মীরজাফর ও জয়চাঁদের সাথে তুলনা করে 'বিশ্বাসঘাতক' বলে আখ‍্যা দিলেন বিশিষ্ট RSS নেতা ইন্দ্রেশ কুমার। সোমবার আলিগড়ের একটি সভায় RSS নেতা বলেছেন, "ওঁরা ভালো অভিনেতা হতে পারেন কিন্তু সম্মান পাওয়ার যোগ্য নন। কারণ ওঁরা বিশ্বাসঘাতক। ওঁরা মিরজাফর ও জয়চাঁদের মতো।"

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আব্দুল কালামের প্রসঙ্গ তুলে RSS নেতা আরো বলেছেন, "কাসভ, ইয়াকুব বা ইসরাত জাহানের মতো মুসলমানদের প্রয়োজন নেই ভারতের। বরং আব্দুল কালামের দেখানো পথে চলে এমন মুসলমানদের দরকার ভারতের। যারা কাসভের দেখানো পথে চলে, তাঁদেরকে দেশদ্রোহী হিসেবে বিবেচনা করা হবে।"

 

 

ইন্দ্রেশ কুমারের মতে কংগ্রেস, বামপন্থী, সাম্প্রদায়িক সংগঠন ও কিছু বিচারকের কারণে অযোধ্যা মামলার শুনানি দেরি হচ্ছে। কংগ্রেস ও বামপন্থী পার্টি অফিসগুলির সামনে এবং এই বিচারকদের বাড়ির সামনে দেশের সমস্ত সাধু-সন্ন‍্যাসীদের ধর্ণা দেওয়ার উপদেশও দিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে উত্তরপ্রদেশের বুলন্দসহরে গোহত্যার অভিযোগে উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলির ছড়ানো হিংসাতে এক পুলিশ অফিসার ও এক যুবকের মৃত্যু হয়েছিল। সেই প্রসঙ্গে বলিউড তারকা নাসিরুদ্দিন শাহ বলেছিলেন, 'এ দেশে পুলিশ অফিসারের মৃত্যুর থেকে গোহত্যাকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়।' ছেলেমেয়েদের নিরাপত্তা নিয়েও চিন্তিত ছিলেন তিনি। এরপর থেকে একাধিকবার BJP ও RSS নেতাদের রোষানলে পড়তে হয়েছেন অভিজ্ঞ এই অভিনেতাকে। নবনির্মাণ সেনা প্রধান অমিত জানি তাঁকে করাচীর টিকিট কেটে দিয়েছিলেন। বিজেপি নেতা মহেন্দ্রনাথ পান্ডের মতে, ১৯৯৯ সালে নাসিরুদ্দিন একটি চলচ্চিত্রে পাকিস্তানী এজেন্টের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন, বর্তমানে উনি সেই চরিত্রের মতো হয়ে উঠেছেন।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন