এমবিবিএস এর থেকে সংস্কৃতে গ্র্যাজুয়েটরা সমাজের পক্ষে বেশি উপযোগী। যার কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন – সংস্কৃত জানা মানুষরা কখনও বেকার থাকবেন না। কারণ মানুষ বাড়ি কিনবে, বিয়ে করবে, তাদের ছেলেমেয়ে হবে। এইসব কাজেই পুজো করার প্রয়োজন হবে এবং সংস্কৃত জানা মানুষের প্রয়োজন হবে। এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার সময় হরিয়ানার শিক্ষামন্ত্রী রামবিলাস শর্মা একথা জানিয়েছেন। হরিদ্বারে জ্ঞানকুম্ভের প্রথম দিনেই হরিয়ানার শিক্ষামন্ত্রীর এহেন মন্তব্যে স্তম্ভিত সব মহল।

তিনি রামবিলাস শর্মা। তিনি বিজেপি শাসিত হরিয়ানার শিক্ষামন্ত্রী এবং আর এস এস-এর সক্রিয় সদস্য। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর এহেন বক্তব্যের পরেই সমালোচনার ঝড় বয়ে গেছে রাজ্যজুড়ে। রাজ্যের বিরোধীরা এবং চিকিৎসকরা মন্ত্রীর এই বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন – এই বক্তব্য থেকেই বিজেপির আসল চরিত্র বোঝা যায়। মনোহর লাল খাট্টার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হবার পরেই তিনি হরিয়ানাকে আর এস এস-এর ল্যাবরেটরি বানিয়ে ফেলতে চাইছেন।

রাজ্যের বিজেপি মন্ত্রীসভার সদস্য এই শিক্ষামন্ত্রী এর আগেও এই ধরণের বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। সাম্প্রতিক অতীতে ছাত্রদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেছিলেন – তথ্যের জন্য গুগল নয়, বেদ খুঁজে দেখুন।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন