কেন্দ্র রাজ্যগুলিকে বাধ্য করছে বিদেশ থেকে কয়লা আমদানি করতে, অভিযোগ পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ার্স ফেডারেশনের

কেন্দ্র রাজ্যগুলিকে বাধ্য করছে বিদেশ থেকে কয়লা আমদানি করতে, অভিযোগ পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ার্স ফেডারেশনের
প্রতীকী ছবি

দেশে কয়লা সঙ্কট দেখা দিয়েছে। সমস্যায় পড়েছে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রেগুলি। এই পরিস্থিতিতে নিজেদের দুর্বলতা ঢাকতে বিদেশ থেকে কয়লা আমদানি করতে রাজ্যের বিদ্যুৎ উৎপাদন সংস্থাগুলিকে চাপ সৃষ্টি করছে কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার, এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এনেছে অল ইন্ডিয়া পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ার্স ফেডারেশন (এআইপিইএফ)।

চলতি মাসের শুরুতে বিদ্যুৎ মন্ত্রক এক নির্দেশিকা জারি করে। তাতে বিদ্যুৎ উৎপাদন সংস্থাগুলিকে কয়লা সঙ্কট মেটাতে বাইরে থেকে কয়লা আমদানি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যেখানে দেশীয় কয়লা সরবরাহের দায়িত্বে রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীন কোল ইন্ডিয়া কোম্পানি।

সমস্ত তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলিকে কয়লা আমদানি করে পূর্ণ ক্ষমতায় চালানোর জন্য বলেছে কেন্দ্র। একইসঙ্গে, আমদানি শুল্কের হারের বিষয়টি কমিটি পর্যালোচনা করবে বলেও জানানো হয়েছে। এই প্রসঙ্গে এআইপিইএফ-র মুখপাত্র ভি কে গুপ্তা জানিয়েছেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যের অধীনে থাকা বিদ্যুৎ উৎপাদন সংস্থাগুলির উপর বলপূর্বক নিজেদের কর্তৃত্ব ফলানোর চেষ্টা করছে এবং নিজেদের দুর্বলতা ঢাকতে আমদানি করা কয়লা কিনতে বাধ্য করছে।'

তিনি বলেন, 'আন্তঃরাজ্য বিদ্যুৎ উৎপাদন সংস্থাগুলির কেন্দ্রীয় সরকারের এখতিয়ার আছে ২০০৩ সালের বিদ্যুৎ আইনের ১১ নম্বর প্রয়োগ করার। তবে, রাজ্য সরকারের মালিকানাধীন জেনারেটিং স্টেশনের ক্ষেত্রে এই আইনের ১১ ধারা প্রয়োগের অধিকারি রাজ্য সরকার।’

ভি কে গুপ্তা আরও জানান, ‘সারাদেশে তাপ কেন্দ্রগুলিতে যে কয়লার সঙ্কট দেখা দিয়েছে, এর কারণ কয়লা, রেলওয়ে এবং বিদ্যুত মন্ত্রকের মধ্যে সমন্বয়ের অভাব।’ যেখানে দেশের মোট বিদ্যুতের ৭০ শতাংশ উৎপাদিত হয় কয়লা থেকে।

সূত্রের খবর, এআইপিইএফ-এর তরফে কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী আর কে সিংকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। যেখানে দাবি করা হয়েছে, ‘সরকারকেই কয়লা আমদানির দায়িত্ব নিতে হবে। একইসঙ্গে, রাজ্যর বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী সংস্থাগুলিকে বর্তমান সিআইএল (CIL) মূল্যে কয়লা সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে।‘

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in