রবিবারই কলকাতার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে পোর্ট ট্রাস্টের দেড়শো বছর পূর্তিতে এক অনুষ্ঠানে কলকাতা বন্দরের নাম শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের নামে করার কথা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর এদিনই রাজ্যের চারটি বাম ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে এক বিবৃতি জারি করা হল।

এসএফআই, এ আই এস এফ, পি এস ইউ এবং এ আই এস বি-র নামে জারি করা ওই বিবৃতিতে এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে বলা হয়েছে – “হিন্দু মহাসভা ও তার নেতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ভারতবর্ষের স্বাধীনতা সংগ্রামে ন্যাকারজনক বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন। শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে ছাত্রদের ইউনিয়ন জ্যাক স্যালুট করার আদেশ ঘোষণা করেছিলেন এবং যে ছাত্ররা এই আদেশ মানতে রাজি হননি তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিলেন।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয় – ভারত ছাড়ো আন্দোলনের সময়েও শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের অবস্থান ছিলো ব্রিটিশ সরকারের পক্ষেই। এহেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের নামে কলকাতা বন্দরের নামকরণ কখনই মেনে নেওয়া যায়না।

এই সিদ্ধান্ত বাতিল করার দাবি জানিয়ে ওই বিবৃতিতে বলা হয় – এই নামকরণের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হল ভারতবর্ষের দুই উজ্জ্বল জ্যোতিষ্ক স্বামী বিবেকানন্দর জন্মদিবসে এবং মাস্টারদা সূর্য সেন-এর আত্মবলিদান দিবসে। স্বভাবতই এমন দিনে এই ঘোষণা ছাত্রসমাজের ঘৃণা দ্বিগুণ করেছে।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন