Afghanistan: ১৪ মাসের বেতন বকেয়া - কাবুলে রাষ্ট্রসংঘের দপ্তরের সামনে চিকিৎসকদের বিক্ষোভ

শতাধিক চিকিৎসক রাষ্ট্রসংঘের দপ্তরের সামনে বকেয়া বেতনের দাবীতে বিক্ষোভ দেখালেন। সামানগান ও নুরিস্তান প্রদেশের চিকিৎসকরা কাবুলে অবস্থিত UN Assistance Mission in Afghanistan এর গেটে বিক্ষোভ দেখান।
Afghanistan: ১৪ মাসের বেতন বকেয়া - কাবুলে রাষ্ট্রসংঘের দপ্তরের সামনে চিকিৎসকদের বিক্ষোভ
ফাইল ছবিছবি ইউ এন নিউজের সৌজন্যে

আফগানিস্তানের শতাধিক পুরুষ ও মহিলা চিকিৎসক রাষ্ট্রসংঘের দপ্তরের সামনে বকেয়া বেতনের দাবীতে বিক্ষোভ দেখালেন। সামানগান এবং নুরিস্তান প্রদেশের চিকিৎসকরা কাবুলে অবস্থিত ইউ এন অ্যাসিস্ট্যান্স মিশন ইন আফগানিস্তান-এর গেটে বিক্ষোভ দেখান। চিকিৎসকরা তাঁদের বকেয়া ১৪ মাসের বেতন বিশ্ব ব্যাঙ্ককে মিটিয়ে দেবার আবেদন জানান। এই খবর জানিয়েছে খামা নিউজ।

বিক্ষোভরত চিকিৎসকরা জানান, শুধুমাত্র তাঁদের ১৪ মাসের বেতনই নয়। এই দুই প্রদেশের ক্লিনিকগুলিও অর্থের অভাবে ভুগছে। তাঁদের মূল অভিযোগ বিশ্ব ব্যাঙ্কের এক আফগান কন্ট্র্যাকটর আসাদ ফৈয়াজের দিকে। যিনি তালিবানি দখলদারির পর চিকিৎসকদের বেতনের টাকা বিশ্ব ব্যাঙ্ক থেকে তুলে আফগানিস্তান ছেড়ে পালান।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আসাদ ফৈয়াজ-এর সঙ্গে বিশ্ব ব্যাঙ্কের দু’বছরের চুক্তি ছিলো। তাঁর দায়িত্বের মধ্যে ছিলো বিভিন্ন প্রদেশে ওষুধ সরবরাহ করা, চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানের ব্যবস্থা করা এবং চিকিৎসকদের বেতনের ব্যবস্থা করা।

খামা নিউজকে এক চিকিৎসক জানিয়েছেন, আসাদ ফৈয়াজ চিকিৎসকদের বেতনের টাকা নিয়ে আফগানিস্তান ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। তিনি একজন দুর্নীতিগ্রস্ত মানুষ এবং তাঁর জন্যই সামাঙ্গান এবং নুরিস্তান প্রদেশে শিশু মৃত্যুর হার বৃদ্ধি পেয়েছে।

এক বিবৃতিতে চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যেহেতু ইসলামিক এমিরেট অফ আফগানিস্তান-এর সঙ্গে বিশ্ব ব্যাঙ্কের কোনো সম্পর্ক নেই তাই ব্যাঙ্ক সরাসরি চিকিৎসকদের বেতন আফগানিস্তানের স্বাস্থ্য মন্ত্রক অথবা অন্য কোনো এনজিও-র মাধ্যমে মিটিয়ে দিক। চিকিৎসকরা আরও জানিয়েছেন, যদি তাঁদের ১৪ মাসের বকেয়া বেতন মিটিয়ে দেওয়া হয় সেক্ষেত্রে তাঁরা লাগাতার প্রতিবাদ আন্দোলনে শামিল হবেন।

- with Agency Input

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.