যে কোনও মুহূর্তে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ছড়ানোর উপর থেকে নিয়ন্ত্রণ হারাতে পারে ফ্রান্স। দেশের সরকারের কোভিড ১৯ বিজ্ঞান পরিষদের তরফে একটি তথ্য প্রকাশ করে মঙ্গলবার হুশিঁয়ারি দিয়ে জানানো হয়েছে, এপ্রিল মাসের পর থেকে ইনটেনিসভ কেয়ার ইউনিটের রোগীদের মধ্যে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেতে দেখা গিয়েছে।

এক বিবৃতিতে পরিষদের তরফে জানানো হয়েছে, ভাইরাস সম্প্রতি আরও সক্রিয়ভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। দূরত্ব এবং সমস্তরকম বাধা অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছে কোভিড। উল্লেখ্য, মে মাসে ফ্রান্সের ২ মাসের লকডাউন শেষ হয়। আর তারপরেই সংক্রমণের মাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। পরিষদের তরফে আরও জানানো হয়েছে, পরিস্থিতি এমন জায়গায় দিয়ে দাঁড়িয়েছে, যে কোনও সময় স্পেনের মতো পরিস্থিতি হতে পারে ফ্রান্সে। অগস্টের পরে সংক্রমণ ফের শুরু হতে পারে বলে আগেই সতর্কবাণী শোনানো হয়েছিল।

রাষ্ট্রপতি ইমান্যুয়েল ম্যাক্রন এই পরিস্থিতিতে জনগণকে সজাগ থাকতে বলেছেন। সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে অন্যের থেকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখা, নিয়মিত হাত ধোওয়া এবং বাইরে বেরোলেই মাস্ক পরার পরামর্শও দিয়েছেন তিনি। এখনও পর্যন্ত ফ্রান্সে ৩০ হাজার ৩১২ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনা আক্রান্ত হয়ে। মোট সংক্রমিতের সংখ্যা ১,৯৫,৬৩৩। যার মধ্যে অ্যাক্টিভ কেস ৮২,৮৬১। এপ্রিল মাসে সংক্রমণের সময় যেখানে হাসপাতালে ৫ হাজারে বেড ছিল, সেখানে ৭ হাজার ১০০ জনের বেশি আক্রান্তকে হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ারে ভর্তি করা হয়েছিল।

এদিকে, গত সপ্তাহেই নতুন করে হাজারো মানুষের সংক্রমণের খবর নথিভুক্ত করা হয়েছে। এই অবস্থায় কিছু এলাকায় কড়াকড়ি শুরু করা হয়েছে বলে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে।


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন