ইতালির মিলান শহর কর্তৃপক্ষ আজ থেকে সেই সমস্ত করোনা আক্রান্তের মৃতদেহ কবর দেওয়া শুরু করলো, যাদের পরিবার-আত্মীয়স্বজন তাঁদের মৃতদেহ নেওয়ার দাবি জানায়নি। আজ এরকম কয়েক ডজন করোনা আক্রান্তের মৃতদেহ কবর দিয়েছে শহর কর্তৃপক্ষ। শহরের উত্তর-পশ্চিম এলাকায় মৃতদেহগুলো কবর দেওয়া হয়েছে। তবে এটি কোনো গণকবর নয় বলে জানিয়েছেন শহরের ডেপুটি মেয়র রবার্টা কোকো।

ইতালিতে এখনও পর্যন্ত ২৫ হাজারেরও বেশি করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ১৩ হাজারের বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে লম্বার্ডিতে।

ভাইরাসের এপিসেন্টার লম্বার্ডিতে মৃত‍্যুর সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং রাজ‍্যের অধিকাংশ মর্গ পূর্ণ হয়ে যাওয়ায় রাজ‍্যের রাজধানী মিলান শহর কর্তৃপক্ষ মর্গ থেকে আত্মীয়দের লাশ দাবি করার সময় ৩০ দিন থেকে কমিয়ে পাঁচ দিন করার কথা ঘোষণা করেছে।

মেয়র রবার্টা কোকো সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, প্রথম দিনই ৬১টি এরকম করোনা আক্রান্তের মৃতদেহ কবর দেওয়া হয়েছে, যাদের মৃতদেহ তাদের আত্মীয়-স্বজনরা দাবি করেননি। শহরের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলে মুসাক্কো কবরস্থানে তাদের কবর দেওয়া হয়েছে।‌ সহজে চেনার জন্য কবরস্থানে এদের নামের সাথে একটি করে ক্রস রয়েছে।

কোকো জানান, "এর অর্থ এই নয় যে এদের বাবা-মা বা পরিবার নেই। এর অর্থ মারা যাওয়ার পর পাঁচদিন কেটে গেলেও এই মৃতদেহগুলোর কোনো দাবিদার আসেনি। হয়তো কঠোর কোয়ারান্টাইন বিধিনিষেধের কারণে বা নিজেরা অসুস্থ থাকায় এদের আত্মীয়-স্বজনরা মৃতদেহের দাবি জানাতে উপস্থিত হতে পারেননি। তবে দু বছর পরে এখান থেকে তাদের কবর অন‍্যত্র স্থানান্তরিত করতে পারেন মৃতের আত্মীয়রা।"

এই এলাকাটিতে প্রায় ৬০০টি এরকম দাবিহীন মৃতদেহ রাখার জায়গা করা হয়েছে। তবে সমস্ত জায়গা ব‍্যবহৃত হবে না বলে আশা করছে কর্তৃপক্ষ।

 


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন