শেষ পাওয়া রাত ১২টার পরিসংখ্যান বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস COVID-19 আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪,১৪,১৪৬ জন। এখনও পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৮,৫৪৩ জনের। মৃতের সংখ্যায় ইতালি ছাড়িয়ে গেছে চীনকে। এখনও পর্যন্ত ২,৮৭,৩১০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সক্রিয় বলে জানা গেছে। ১,০৮,২৯৩ জন ভাইরাস আক্রান্ত মানুষ সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন বলেও জানানো হয়েছে। এদিন চীনে ফের ৭৮ জনের মধ্যে নতুন সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

এখনও পর্যন্ত বিশ্বের ১৯৬ টি দেশ থেকে এই ভাইরাস সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। যার মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ সবথেকে বেশি ঘটেছে চীনে। সংক্রমিতের সংখ্যা ৮১,১৭১। এর পরেই স্থান ইটালীর। ৬৯,১৭৬ জন। আমেরিকায় ৫০,৮৬০ জন। স্পেনে ৩৯,৬৭৬ জন। জার্মানিতে ৩২,৭৮১ জন। ইরানে এখনও পর্যন্ত ২৪,৮১১ জন, ফ্রান্সে ২২,৩০৪ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ৯,০৩৭ জন, সুইজারল্যান্ডে ৯,৮৭৭ জন, ইংল্যান্ডে ৮,০৭৭ জন, নেদারল্যান্ডে ৫,৫৬০ জন, অস্ট্রিয়াতে ৫,১৩৭ জন, বেলজিয়ামে ৪,২৬৯ জন, নরওয়েতে ২,৭৭৯ জন, সুইডেনে ২,২৮৬ জন, ডেনমার্কে ১,৫৯১ জন, পর্তুগালে ২,৩৬২ জন, মালয়েশিয়াতে ১,৬২৪ জন, কানাডায় ২,৫৮৩ জন, অস্ট্রেলিয়াতে ২,১৪৪ জন, ব্রাজিলে ১,৯৮০ জন এবং জাপানে ১,১৯৩ জন, ইস্রায়েলে ১,৬৫৬ জন, তুর্কিতে ১,৫২৯ জন।

করোনায় সংক্রমিত হয়ে এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক মৃত্যু হয়েছে ইতালিতে। সেখানে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৬,৮২০। এই মুহূর্তে চীন পরিস্থিতি অনেকটাই সামাল দিয়েছে এবং সেখানে নতুন করে আক্রান্ত হওয়া বা মৃত্যুর সংখ্যা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। এখনও পর্যন্ত চীনে মারা গেছেন ৩,২৭৭ জন। স্পেনে মৃত ২,৮০০ জন। আমেরিকায় মৃত ৬৫৩ জন। জার্মানিতে মৃত ১৫৬ জন। ইরানে মৃত ১,৯৩৪ জন। ফ্রান্সে মৃত ১,১০০ জন। দক্ষিণ কোরিয়ায় ১২০ জন। সুইজারল্যান্ডে ১২২ জন। ইংল্যান্ডে ৪২২ জন। নেদারল্যান্ডে ২৭৬ জন, বেলজিয়ামে ১২২ জন।

এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুসারে শেষ কয়েক ঘণ্টায় চীনে নতুন করে ৭৮ জন সংক্রমিত হয়েছেন। ইতালিতে ৫,২৪৯ জন, আমেরিকায় ৭,১২৬ জন, স্পেনে ৪,৫৪০ জন, জার্মানিতে ৩,৭২৫ জন, ফ্রান্সে ২,৪৪৮ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ৭৬ জন, সুইজারল্যান্ডে ১,০৮২ জন, অস্ট্রিয়াতে ৬৬৩ জন, অস্ট্রেলিয়াতে ২৫৭ জন, ব্রাজিলে ৫৬ জন, পাকিস্তানে ৯৭ জন, ইস্রায়েলে ২১৪ জন সংক্রমিত হয়েছেন। সারা বিশ্বে নতুন ভাবে সংক্রমিত হয়েছেন ৩২,৪৬০ জন।

চীনে এখনও পর্যন্ত ১,৫৭৩ জন, ইটালীতে ৩,৩৯৩ জন, স্পেনে ১,১৭৫ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ৫৯ জন, আমেরিকায় ১,১৭৫ জন, ফ্রান্সে ২,৫১৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে ২৪ মার্চ রাত ৮.১৫ এ প্রকাশিত তথ্য অনুসারে এখনও পর্যন্ত ভারতে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫১২ জন। যাদের মধ্যে ৪৩ জন বিদেশী। এঁদের মধ্যে ৪০ জনকে সুস্থ হয়ে যাবার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। মৃত্যুর সংখ্যা ১০।

ভারতে সর্বাধিক সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে কেরল থেকে। এখানে সংক্রমিতের সংখ্যা ৯৫। মহারাষ্ট্রে ৯৫ জন সংক্রমিত হয়েছেন। যাদের মধ্যে মহারাষ্ট্রে ৩ জন বিদেশী এবং কেরলে ৮ জন বিদেশী। উত্তরপ্রদেশে ৩৩ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে, যার মধ্যে ১ জন বিদেশী। তেলেঙ্গানায় মোট সংক্রমিত ৩৫ জনের মধ্যে ১০ জন বিদেশী। রাজস্থানে মোট সংক্রমিত ৩২ জনের মধ্যে ২ জন বিদেশী।

এছাড়াও অন্ধ্রপ্রদেশে ৮, বিহারে ৩, ছত্তিশগড়ে ১, দিল্লিতে ১ বিদেশী সহ ৩০, গুজরাটে ১ বিদেশী সহ ৩৩, হরিয়ানায় ১৪ বিদেশী সহ ২৮, হিমাচল প্রদেশে ৩, কর্ণাটকে ৩৭, মধ্যপ্রদেশে ৭, মণিপুরে ১, ওড়িশাতে ২, পুদুচেরিতে ১, পাঞ্জাবে ২৯, তামিলনাড়ুতে ১৫, চন্ডীগড়ে ৭, জম্মু ও কাশ্মীরে ৪, লাদাখে ১৩, উত্তরাখণ্ডে ১ বিদেশী সহ ৪, পশ্চিমবঙ্গে ৯ জন সংক্রমিত হয়েছে।

 


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন