শেষ পাওয়া খবর অনুসারে বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস COVID-19 আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২,২৫,৬৫০ জন। এখনও পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৯,২৭৮ জনের। এখনও পর্যন্ত ১,৩০,৩৭৬ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সক্রিয় বলে জানা গেছে। ৮৫,৮৩১ জন ভাইরাস আক্রান্ত মানুষ সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন বলেও জানানো হয়েছে। এদিন চীনে ফের ৩৪ জনের মধ্যে নতুন সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

এখনও পর্যন্ত বিশ্বের ১৭৬ টি দেশ থেকে এই ভাইরাস সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। যার মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ সবথেকে বেশি ঘটেছে চীনে। সংক্রমিতের সংখ্যা ৮০,৯২৮। এর পরেই স্থান ইটালীর। ৩৫,৭১৩ জন। ইরানে এখনও পর্যন্ত ১৮,৪০৭ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ৮,৫৬৫ জন, স্পেনে ১৭,১৪৭ জন, জার্মানিতে ১৩,০৮৩ জন, ফ্রান্সে ৯,১৩৪ জন, আমেরিকায় ৯,৪৬৪ জন, সুইজারল্যান্ডে ৩,৩৪৭ জন, নরওয়েতে ১,৬৭৯ জন, ডেনমার্কে ১,১৩২ জন, সুইডেনে ১,৩০২ জন, হল্যান্ডে ২,০৫১ জন, ইংল্যান্ডে ২,৬২৬ জন এবং জাপানে ৯২৩ জন।

করোনায় সংক্রমিত হয়ে এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক মৃত্যু হয়েছে চীনে। সেখানে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩,২৪৫। যদিও এই মুহূর্তে চীন পরিস্থিতি অনেকটাই সামাল দিয়েছে এবং সেখানে নতুন করে আক্রান্ত হওয়া বা মৃত্যুর সংখ্যা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে।

ইটালীতে মৃতের সংখ্যা ২,৯৭৮। ইরানে ১,২৮৪। দক্ষিণ কোরিয়ায় মারা গেছেন ৯১ জন। স্পেনে মৃত ৭৬৭। জার্মানিতে ৩১। ফ্রান্সে ২৬৪, আমেরিকায় ১৫৫, সুইজারল্যান্ডে ৩৬, হল্যান্ডে ৫৮, জাপানে ৩২ জন, ইংলন্ডে ১০৪ জন।

এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুসারে শেষ ২৪ ঘণ্টায় চীনে নতুন করে ৩৪ জন সংক্রমিত হয়েছেন। ইরানে ১,০৪৬, স্পেনে ২,৩৭৮, জার্মানিতে ৭৫৬, সুইজারল্যান্ডে ২৩২জন, আমেরিকায় ২০৫ জন, জাপানে ৯ জন, অস্ট্রিয়াতে ১৯৭ জন, বেলজিয়ামে ২৩২ জন, অস্ট্রেলিয়াতে ১১৩ জন, বেলজিয়ামে ৩০৯, নরওয়েতে ৮৮, ডেনমার্কে ৭৫, মালয়েশিয়াতে ১১০, মেক্সিকোতে ২৫ জন, লুক্সেমবুরগে ১৩২, আইসল্যান্ডে ৮০, ইন্দোনেশিয়া ৮২, থাইল্যান্ডে ৬০ এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় ১৫২ জনের মধ্যে নতুন করে সংক্রমিত হবার খবর পাওয়া গেছে।

চীনে এখনও পর্যন্ত ২,২৭৪ জন, ইটালীতে ২,২৫৭ জন, স্পেনে ৮০০ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ৫৯ জন, ফ্রান্সে ৯৩১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ ১৯ মার্চ বিকেল ৫টায় প্রকাশিত তথ্য অনুসারে এখনও পর্যন্ত ভারতে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১৭৩ জন। যাদের মধ্যে ২৫ জন বিদেশী। এদিন পাঞ্জাবে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর পর ভারতে মোট ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও আন্তর্জাতিক স্তরের পরিসংখ্যান অনুসারে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯৭। সংক্রমিতদের মধ্যে অন্ধ্রপ্রদেশে ২ জন, দিল্লিতে ১২ জন, কর্ণাটকে ১৪ জন, হরিয়ানায় ১৭ জন কেরালায় ২৭ জন, মহারাষ্ট্রে ৪৭ জন, ওড়িশায় ১ জন, পুদুচেরিতে ১জন, পাঞ্জাবে ২ জন, রাজস্থানে ৭ জন, তামিলনাড়ুতে ২ জন, তেলেঙ্গানায় ৬ জন, চন্ডীগড়ে ১ জন, কাশ্মীরে ৪ জন, লাদাখে ৮ জন, উত্তরপ্রদেশে ১৯ জন এবং উত্তরাখণ্ডে ১ জন এবং পশ্চিমবঙ্গে ১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। অসুস্থদের মধ্যে ২০ জনকে সুস্থ হবার পর হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ভারতে সর্বাধিক সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে মহারাষ্ট্র থেকে। এখানে ৪৭ জন সংক্রমিত হয়েছেন। যাদের মধ্যে ৩ জন বিদেশী। এছাড়াও কেরলে ২৭ জন, যার মধ্যে ২ জন বিদেশী এবং উত্তরপ্রদেশে ১৯ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে, যার মধ্যে ১ জন বিদেশী। রাজস্থানে মোট সংক্রমিত ৭ জনের মধ্যে ২ জন বিদেশী। এঁদের মধ্যে ৩ জন সুস্থ হবার পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন।

 


জনপ্রিয় খবর

  • এই সপ্তাহের এর

  • এই মাস এর

  • সর্বকালীন